করোনা আক্রান্ত হলেন এবার এক পুলিশকর্মী। রাজ্যে এই প্রথম কোনও পুলিশকর্মীর আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেল। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, এমআর বাঙুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ওই পুলিশ কর্মীকে। জানা গিয়েছে, আক্রান্ত ওই কর্মী কলকাতা পুলিশের উত্তর ডিভিশনের একটি থানায় কনস্টেবল পদে কর্মরত।

আরও পড়ুন, বৈশাখের শুরুতেই প্রবল ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস, কলকাতার তাপমাত্রা স্বাভাবিকের উপরে

হাসপাতাল সূত্রে খবর, নারকেলডাঙা পুলিশ কোয়ার্টারে থাকেন ওই পুলিশকর্মী।  কিডনির অসুখ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ওই পুলিশকর্মী। কিন্তু পরে তাঁর শরীরে করোনা উপসর্গ দেখা দিলে লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। এরপর রিপোর্ট পজিটিভ আসে।  স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরে তাঁর পরিবারকে কোয়রান্টিনে পাঠানো হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, কোভিডের পাশাপাশি অন্যান্য পুরনো রোগ থাকায় ওই পুলিশকর্মীর শারীরিক অবস্থা যথেষ্ট সঙ্কটজনক। যদিও কলকাতা পুলিশের কমিশনার, এ বিষয়ে  কোনও কথা বলতে চাননি।

আরও পড়ুন, লকডাউনে যৌনকর্মী-রূপান্তরকামীদের পাশে দাঁড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী, পৌঁছানো হল পর্যাপ্ত খাবার

উল্লেখ্য়, কোভিডের মোকাবিলায় সক্রিয় কলকাতা পুলিশ বাহিনী। বাহিনীর সদস্যরাও আক্রান্ত হতে পারেন এই আশঙ্কা থেকেই পুলিশ ট্রেনিং স্কুলে একটি বিশেষ শাখা গঠন করা হয়েছে। কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, ইতিমধ্য়েই ১২ জন পুলিশ কর্মীকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। বাহিনীর কারও মধ্যে করোনা উপসর্গ দেখা দিলে কিংবা কেউ আক্রান্ত হলে তাঁকে দ্রুত আইসোলেশনে পাঠানো থেকে শুরু করে তাঁর পরিবার এবং সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের  চিহ্নিত করে কোয়রান্টিনে পাঠানোর মতো প্রথামিক বিষয়গুলো করবে কলকাতা পুলিশের এই বিশেষ শাখা।




করোনার কোপে বন্ধ কলকাতার আস্ত একটি হাসপাতাল, ১০০ ছাড়িয়ে চিকিৎসক-নার্স সহ কোয়ারেন্টাইনে
 
পার্ক সার্কাসের বেসরকারি হাসপাতালে প্রৌঢ়ের মৃত্য়ু, করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসতেই অভিযোগ তুলল পরিবার

করোনার রোগী সন্দেহে বৃদ্ধকে বেধড়ক মার, স্যালাইনের চ্যানেল করা হাতে দড়ি পড়ালো মানিকতলাবাসী