ঘূর্ণিঝড় আমফানের জেরে কার্যত বিধ্বস্ত কলকাতা-সহ  রাজ্যের বিদ্যুৎ পরিষেবা। গোটা রাজ্যেই ভেঙেছে একাধিক বিদ্যুতের খুঁটি ও তার। পাঁচদিন কেটে গেলেও পরিষেবা স্বাভাবিক করতে পারেনি সিইএসসি। আর তার জেরে চলছে এখনও অবরোধ-বিক্ষোভ। এই পরিস্থিতিতে সিইএসসি-কে কড়া হুঁশিয়ারি দিলেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

আরও পড়ুন, ৪০ কিমি বেগে বইবে ঝোড়ো হাওয়া, ভারী বৃষ্টিতে ভাসতে চলেছে উত্তরবঙ্গ

আমফানের পর পাঁচদিন কেটে গেলেও এখনও অনেক বাড়িতেই আসেনি বিদ্যুৎ।আর তার জেরে চলছে এখনও অবরোধ-বিক্ষোভ।  সোমবারও দফায় দফায় শহরের বিভিন্ন প্রান্তে বিদ্যুতের দাবিতে চলে অবরোধ, বিক্ষোভ। ফিরহাদ হাকিম সোমবার সিইএসসি-র বেশ কয়েকজন আধিকারিকের সঙ্গে কথাও বলেন। তিনি বলেন, 'এখনও বহু মানুষ বিদ্যুৎ পাননি। আর কত ধৈর্য ধরব, এনাফ ইজ এনাফ।' এছাড়াও শহরের বিদ্যুৎ পরিষেবা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব স্বাভাবিক করারও নির্দেশ দেন তিনি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সিইএসসিকে কর্মী সংখ্য়া বাড়ানোরও পরামর্শ দেন তিন। 

আরও পড়ুন, নতুন করে কলকাতায় আরও বাসরুট খোলার সম্ভাবনা, ৪৯ রুটে মিলতে পারে পরিষেবা


অপরদিকে, সিইএসসি-র দাবি, আর মাত্র একদিনের মধ্যেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে। উল্লেখ্য়, রাজ্য়ের মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায় মুখ খোলার পর কার্যত চাপের মুখে পড়ে মঙ্গলবারের মধ্য়েই শহরের বিদ্য়ুৎ পরিষেবা স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরানোর কথা জানিয়েছিলেন সিইএসসি-র বিদ্যুৎ বণ্টন বিভাগের (ডিস্ট্রিবিউশন সার্ভিসেস) প্রধান অভিজিৎ ঘোষ। কিন্তু রাত পেরোলেই মঙ্গলবার। ঘূর্ণিঝড়ের পর দেখতে দেখতে সপ্তাহ ঘুরতে চলেছে। অধিকাংশ জায়গায় পরিষেবা মিললেও  এখনও কিছু জায়গায় বিদ্য়ুৎ না ফেরায় কার্যতই জেরবার রাজ্য়। তাই কড়া হুঁশিয়ারি দিলেন ফিরহাদ।

 

 

 রাজ্য়ে একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ, করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া ছাড়াল ২০০

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসিস্ট্যান্ট

কোভিড হাসপাতালে স্বাভাবিক মৃত্য়ুতেও পরিবার চাইলে সৎকার করবে কলকাতা পৌরসভা, জানালেন ফিরহাদ

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের

রোগী ফেলে পালাতে পারল না অ্যাম্বুল্যান্স, পিপিই পরা স্বাস্থ্য়কর্মীদেরকে তীব্র প্রতিবাদ নাকতলাবাসীর