করোনার পরিস্থিতি আগের তুলনায় অনেকটাই উন্নত হয়েছে। কিন্তু, তার মধ্যেও বাধ সাধছে বাংলায় বিধানসভা নির্বাচন। অন্যদিকে, আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা বন্ধ থাকায় সমস্যা আরও গুরুতর আকার নিয়েছে। কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলায় অংশ নিতে পারবেন না অতিথিরা। এই সবের কারণে আরও পিছিয়ে গেল কলকাতা বইমেলা। এই মাসের গোড়াদ দিকে হওয়ার কথা থাকলেও, নানা কারণে তা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানাল হল আয়োজক সংস্থা পাবলিশার্স এন্ড বুকসেলার্সের তরফে।

আরও পড়ুন-অধীরগড়-শুভেন্দু অনুগামীর দাপট, দুইয়ের জোড়া ফলা আটকাতে চ্যালেঞ্জ নিলেন ফিরহাদ

জেনেভা ক্য়ালেন্ডার অনুযায়ী ২০২১-এর কলকাতা বইমেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল ২৭ জানুয়ারি থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এবছর দিনক্ষণ বদলানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে গিল্ড। মেলা বসবে সল্টলেক সেন্ট্রাল পার্কে। বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে আগামী জুলাই মাসে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে বইমেলার দিন ঘোষণা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু একদিকে রাজ্যে নির্বাচন, মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিকের সিবিএসই, আইসিএসই বোর্ডের পরীক্ষা। এই দুইয়ের জোড়া ফলায় দিনক্ষণ পেছানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আরও পড়ুন-'পরিযায়ীদের জন্য টাকা নেই, চোরেদের বিমান করে নিয়ে যাচ্ছে', বিজেপি তোপ মুখ্যমন্ত্রীর

কলকাতা ৪৫তম আন্তর্জাতিক বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে জুলাই মাসের শেষের দিকে। কিন্তু, সে সময় বর্ষা চলে আসে। সেকারনে বৃষ্টির সম্ভাবনার কারনে বইমেলার আয়োজন কতটা যুক্তিযুক্ত। আয়োজক সংস্থা গিল্ড জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা চালু হয়নি। সে কারণে এই আন্তর্তজাতিক বইমেলায় বিদেশের অতিথিরাও থাকতে পারবেন না। এই সব বিষয়গুলি মাথায় রেখে বইমেলা পিছোনোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে গিল্ডের তরফে।