শহরে ইতিমধ্য়ে করোনা রোগী ফিরিয়ে দেওয়া এবং চড়া বিলের জন্য বেসরকারি হাসপাতালের মুকুটে কালো পালক জুটেছে। তবে এবার আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল 
পার্ক সার্কাসের এক নার্সিংহোম। করোনা আক্রান্তের মৃত্যুর পরেও ২ দিন ভেন্টিলেটরে দেহ রেখে দেওয়ার অভিযোগে কাঠগোড়ায় ওই নার্সিংহোম। কড়েয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে মৃতের পরিবার। এদিকে করোনা রোগীর মৃত্যুর সময় জানতে ময়নাতদন্তের সিদ্ধান্ত। 

আরও দেখুন, মেট্রোর স্মার্টকার্ডের অনলাইন রিচার্জে ভীড়, কীভাবে বুকিং করবেন জেনে নিন

জানা গিয়েছে, মৃত সেই ৫৫ বছরের সবর আলির বাড়ি হুগলির চণ্ডীতলায়। গত ২৫ অগাস্ট শ্বাসকষ্টের কারণে তাঁকে ভর্তি করা হয় পার্ক সার্কাসের স্বস্তিক সেবা সদন নার্সিংহোমে। ভর্তির দিন থেকেই রোগী ছিলেন ভেন্টিলেটরে। নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের দাবি, ৩১ অগাস্ট বিকেলে ওই করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়। এদিকে মৃতের পরিবারের দাবি, ৩১ অগাস্ট নয়, মৃত্যু হয়েছে তার দুইদিন আগে, ২৯ অগাস্ট। অভিযোগ, বিল বাড়ানোর জন্য মৃত্যুর পরেও ২ দিন ভেন্টিলেটরে দেহ রেখে দেওয়া হয়। কবে মৃত্যু হয়েছে তা জানতে ময়নাতদন্তের দাবি তুলেছে পরিবার। তবে এখানেই শেষ নয়, সবর আলির আদৌ করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন কিনা জানতে মৃতদেহের কোভিড পরীক্ষার দাবিও তোলা হয়েছে।

আরও দেখুন, অনুমতি দেয়নি রাজ্য, 'বন্দে ভারত প্রকল্প'-র সূচিতে এবারও নেই কলকাতা

অপরদিকে,  মৃতের পরিবারের অভিযোগ অস্বীকার নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের। মৃতের পরিবারের দাবিতেই, মঙ্গলবার বিকেলে এনআরএস মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ মর্গে নিয়ে যাওয়া হয় মৃতদেহ। বুধবার সেখানেই হবে ময়নাতদন্ত। তবে মৃতদেহের থেকে নমুনা নিয়ে নতুন করোনা পরীক্ষা হবে কিনা, সে বিষয়ে নিশ্চিত কিছু জানানো হয়নি। 

 

       

 

কোভিড রোগী ভর্তিতে ৫০ হাজার টাকার বেশি নেওয়া যাবে না, নয়া নির্দেশিকা জারি রাজ্যের

ভয় নেই করোনায়, মেডিক্য়ালের ৪ তলার কার্নিশে পা দোলাচ্ছে রোগী

ভুয়ো টেস্টের ফাঁদে পড়ে করোনায় মৃত্যু এক ব্য়াক্তির, গ্রেফতার প্রতারণা চক্রের ৩ জন

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা