বেছে বেছে বিজেপি নেতাদের খুন করার চক্রান্ত চলছে। এই খুনের ষড়যন্ত্রী খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। এমনই অভিযোগ আনলেন রাজ্য বিজেপির প্রথম সাড়ির এই নেতা।

আগেও বহুবার বলেছেন। অর্জুন সিংয়ের মাথাফাটার পর কাঠগড়ায় তুলেছেন মমতাকে। এবার সরাসরি তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার অভিযোগ আনলেন মুকুল রায়। রাজ্য বিজেপি নেতার অভিযোগ, বিজেপির গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন এমন নেতাদের নিশানা করেছেন মমতা। তাঁর নিশানায় অর্জুন সিং,দিলীপ ঘোষ ছাড়াও রয়েছে কৈলাস বিজয়বর্গীয়র নাম। মুকুলের অভিযোগ, হারার ভয়ে পাগল হয়ে গেছেন মমতা। সেই কারণেই এই  খুনের ছক কষেছেন তৃণমূল নেত্রী।

আরও পড়ুন :সমস্য়ার সমাধান হয়ে গেছে ভাবাটা সত্যের অপলাপ হবে, বললেন শোভন

আরও পড়ুন :স্পিকারের কাছে অভিযোগ,সাংসদের ওপর আইপিএস কিনা জানবেন অর্জুন

রাজ্যের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক হানাহানির পরিসংখ্যান বলছে,কদিন আগেই লেকটাউনে চা চক্রে তৃণমূলের হামলার স্বীকার হয় দিলীপ ঘোষের দলবল। শ্যামনগরে বিজেপির পার্টি অফিসকে দখল নিয়ে মাথা ফাটে সাংসদ অর্জুন সিংয়ের। পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুকুল রায় বলেন, অর্জুনকে খুন করার চেষ্টা করছেন মমতা। এই অপচেষ্টার জন্য মমতাকে গ্রেফতার করার দাবি করেন মুকুল। পরে মুখ্য়মন্ত্রীর বিরুদ্ধে এরকম কথা বলার জন্য মুকুলের বিরুদ্ধে ভাটপাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন রাজ্যের আইন প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। মুকুলের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন তিনি। যদিও থানায় অভিযোগের পরও নিজের অবস্থানে অনড় থাকেন মুকুল। তিনি বলেন,আগে যা বলেছি এখনও তাই বলছি, অর্জুনকে খুনের চেষ্টার মূল কারিগর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন চোর খুঁজতে গিয়ে খাটের তলায় উদ্ধার গৃহবধূর প্রেমিক, সোনারপুরে শ্রীঘরে দু' জনেই

আরও পড়ুন :শোভনের শর্তকে আমল নয়, দেবশ্রী রায়কে নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে দলই