লকডাউন উঠলেও করোনা-আবহে স্বাস্থ্য়বিধি মেনেই পরিষেবা শুরুর প্রস্তুতি মেট্রো কর্তৃপক্ষের। এদিকে কলকাতা মেট্রো, ভারতীয় রেলের অধীনে থাকায় রেল মন্ত্রকের সিদ্ধান্তের জন্য় অপেক্ষা করতে হচ্ছে মেট্রো কর্তৃপক্ষকে। তবে  হঠাৎ কোনও সরকারি নির্দেশ জারি হলে পরিষেবা শুরু করে দিতে হতে পারে বলে মনে করছেন মেট্রোকর্তারা। সেই কারণেই মেট্রো স্টেশনে স্বাস্থ্য়বিধি নিয়েই নতুন করে পরিকল্পনা করতে হচ্ছে মেট্রো কর্তৃপক্ষকে। 

 আরও পড়ুন, ট্রপিক্যালে আরও ২ জনের শরীরে মিলল করোনার জীবাণু, কোয়ারেন্টিনে ৪০ স্বাস্থ্যকর্মী

উল্লেখ্য়, মঙ্গলবার থেকে সারা দেশে ১৫ জোড়া বিশেষ ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল মন্ত্রক। আগামী ১৭ মে তৃতীয় দফার লকডাউন শেষ হওয়ার পরে ধাপে ধাপে বিভিন্ন পরিষেবা চালু হতে পারে। অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ফের শুরু হলে সতর্কতা বজায় রেখে গণপরিবহণও চালু করার বিষয়টি ভাবা হতে পারে। সেই ভাবনা থেকে হঠাৎ কোনও সরকারি নির্দেশ জারি হলে পরিষেবা শুরু করে দিতে হতে পারে বলে মনে করছেন মেট্রোকর্তারা। সেই কারণেই মেট্রো স্টেশনে যাত্রীদের প্রবেশ থেকে টোকেন কেনা বা ট্রেনে চড়া সব কিছু নিয়েই নতুন করে পরিকল্পনা করতে হচ্ছে মেট্রো কর্তৃপক্ষকে। স্টেশনের প্রবেশপথে যাত্রীদের ভিড় নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি টোকেন কেনার কাউন্টার আলাদা করা হচ্ছে। মেট্রো সূত্রের খবর, দুটি লাইনের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখতে পাশাপাশি দুটি কাউন্টার খোলা হবে না। মাঝে একটি করে কাউন্টার ছেড়ে রাখা হবে। প্ল্যাটফর্মে ঢোকার পথে একসঙ্গে অনেকে যাতায়াত করা যাবে না। প্রয়োজনে গেটের সংখ্যা বাড়ানো হবে।

আরও পড়ুন, মুগ-মুসুরের পরিবর্তে শুধু ছোলা-অড়হর ডাল পাঠানোর সিদ্ধান্ত, অভিযোগ জানালেন খাদ্যমন্ত্রী

 

কলকাতা মেট্রো কর্তৃপক্ষের পরিকল্পনা অনুসারে,  যাত্রীদের ক্ষেত্রে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা ছাড়াও প্ল্যাটফর্মে প্রবেশের সময়ে স্যানিটাইজ়ার দেওয়ার কথাও ভাবা হয়েছে। ট্রেনের কামরায়  সামাজিক দূরত্ব-বিধি মেনে চলার জন্য়, বসার এবং দাঁড়িয়ে থাকার জায়গা পৃথক ভাবে রং দিয়ে চিহ্নিত করা হচ্ছে। পাশপাশি রাখা হচ্ছে টোকেন ধোয়ারও ব্যবস্থা। প্রস্তুতি হিসেবে স্টেশন ধোয়া-মোছার পাশাপাশি রেকগুলির রক্ষণাবেক্ষণের কাজও শুরু হয়েছে। সেই কাজ চলছে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোতেও। তবে নতুন করে মেট্রো পরিষেবা কবে আবার শুরু হবে, সেটা নির্ভর করছে কলকাতার করোনা পরিস্থিতির উপরে। কলকাতা-সহ দেশের ৬টি বড় শহরে সংক্রমণের হার এখন ঊর্ধ্বমুখী। ফলে সরকারি সিদ্ধান্তের পাশাপাশি করোনা সংক্রমণ নিম্নমুখী হওয়ার দিকেও তাকিয়ে মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

 

 

কোভিড হাসপাতালে স্বাভাবিক মৃত্য়ুতেও পরিবার চাইলে সৎকার করবে কলকাতা পৌরসভা, জানালেন ফিরহাদ

করোনা আক্রান্ত প্রাণ হারালেন এবার রাজ্যের এক আইনজীবী, এদিকে আইসোলেশনে তাঁর স্ত্রী

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের

 বেহালা হাসপাতালের প্রসুতির শরীরে মিলল এবার করোনার জীবাণু, কেপিসি-র ৩ রোগীর রিপোর্টও পজিটিভ

রোগী ফেলে পালাতে পারল না অ্যাম্বুল্যান্স, পিপিই পরা স্বাস্থ্য়কর্মীদেরকে তীব্র প্রতিবাদ নাকতলাবাসীর