ঘূর্ণিঝড় আমপানের দাপটে জানপ্রাণ বাঁচাতে আজ, বুধবার দুপুর থেকে কলকাতা-সহ উপকূলবর্তী জেলার বাসিন্দাদের বাড়ি থেকে বেরোতে বারণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সঙ্গে নিজের বাড়িঘর মজবুত না-হলে প্রশাসনের নির্দেশ মেনে প্রত্যেককে দুই দিনের জন্য সরকারি শিবিরে আশ্রয় নিতেও অনুরোধ করেছেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রী জানান, বুধবার, ঝড়ের রাতে তিনি নিজে নবান্নে উপস্থিত থাকবেন। উল্লেখ্য়, ঘূর্ণিঝড়ের জেরে রাজ্যে সরানো হল ৪ লক্ষাধিক মানুষকে।

আরও পড়ুন, ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় আমফান, পরিষেবা অটুট রাখতে সবভাবে প্রস্তুত বিদ্যুৎ-ইন্টারনেট সংস্থাগুলি

রাজ্য়ের মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায় জানিয়েছেন, 'কোভিডের কারণে সরকারি শিবিরে যতটা সম্ভব পারস্পরিক দূরত্বের বিধি বজায় রাখার এবং প্রত্যেককে মাস্ক দেওয়ার ব্যবস্থা করবে প্রশাসন। খাওয়ারও ব্যবস্থা হবে। ঝড় চলে গেলে বাসিন্দারা বাড়ি ফিরতে পারবেন।' তিনি আরও জানিয়েছেন, আমফানের মোকাবিলায় সরকার সব দিক থেকে প্রস্তুত। খোলা হয়েছে আশ্রয় শিবির। পাঠানো হয়েছে জাতীয় ও রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। খাবার, পানীয় জলের ব্যবস্থা হয়েছে। ঝড়ের পরে পরিস্থিতি সামলাতে প্রস্তুত রাখা হয়েছে বিদ্যুৎ, পূর্ত, দমকল বাহিনীকেও। এরই পাশপাশি ঘূর্ণিঝড়ের জেরে রাজ্যে সরানো হল ৪ লক্ষাধিক মানুষকে। বুধবার রাতে নবান্ন কন্ট্রোলরুমে থাকছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  ঘূর্ণীঝড় আমফানে জরুরী  নাম্বার গুলি হল- বিপর্যয় মোকাবিলা- ১০৭০, দমকল- ১০১, রাজ্য পুলিশ- ১০০, কলকাতা পুলিশ- ১০০, ২২১৪৩২৩০, রাজ্য পুলিশ- ০৩৩-২২১৪-৫৪১২, ০৩৩-২২১৪-৫৪১৩, কলকাতা পুলিশের হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর- ৯৪৩২৬২৪৩৬৫। 


আরও পড়ুন, করোনায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ কলকাতা পুলিশ কর্মীদের, নিগৃহীত ডিসি

অপরদিকে, মঙ্গলবার আবহাওয়া দফতরের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ঘূর্ণিঝড় এবং প্রবল বৃষ্টির বিপদ থেকে বাঁচতে বুধবার কলকাতায় দোকানপাট বন্ধ রাখার জন্য রাজ্য সরকারকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। কলকাতা পুলিশ মাইকে প্রচার করছে, বাসিন্দারা যেন বাড়ি থেকে না-বেরোন। দোকান খুলতে বারণ করা হচ্ছে দোকানিদের।

 

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসিস্ট্যান্ট

কোভিড হাসপাতালে স্বাভাবিক মৃত্য়ুতেও পরিবার চাইলে সৎকার করবে কলকাতা পৌরসভা, জানালেন ফিরহাদ

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের

রোগী ফেলে পালাতে পারল না অ্যাম্বুল্যান্স, পিপিই পরা স্বাস্থ্য়কর্মীদেরকে তীব্র প্রতিবাদ নাকতলাবাসীর