মুরগির মাংস ও ডিমের উৎপাদন বাড়াতে ও রপ্তানির জন্য উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার। বিগত ৮ বছর ধরে কলকাতা ইন্টার ন্যাশনাল পোলট্রি ফেয়ার এর আয়োজন করে আসছে ওয়েস্ট বেঙ্গল পোল্ট্রি ফেডারেশন ও রাজ্য প্রাণী সম্পদ উন্নয়ন দফতর। এবারও নিউটাউন ইকো পার্কে অষ্টম কলকাতা ইন্টার ন্যাশনাল পোল্ট্রি ফেয়ার এর আয়োজন করা হয়েছে। ১২ থেকে ১৪ ফেব্রুয়ারি অবধি  টানা  তিন দিন চলবে।

আরও পড়ুন, সিঁথি কান্ডের একমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী আশুরা বিবি নিখোঁজ, তদন্তে লালবাজার

সূত্রের খবর, বুধবার এই পোল্ট্রি ফেয়ারের উদ্বোধন করেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ উন্নয়ন দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মৎস্য মন্ত্রী চন্দ্র নাথ সিনহা, কলকাতা ইন্টার ন্যাশনাল পোল্ট্রি ফেয়ারের কনভেনর মদন মোহন মাইতি সহ রাজ্যের পোল্ট্রি ফার্মাররা।মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ বলেন, 'পশ্চিমবঙ্গে ডিম উৎপাদনে সয়ংবরতার লক্ষ্যে পোঁছে গিয়েছে প্রায়। পশ্চিমবঙ্গে একটা ইনসেন্টিভ স্কীম চালু করা হয়েছে। ছোট ও মাঝারি খামার সব এবং তাতে বৃদ্ধি পেয়েছে। মাংস উৎপাদনে ২০১০-২০১১ এর সাপেক্ষে আমরা সাফিসিয়েন্ট। বাইরের রাজ্যেও পাঠাচ্ছি।' পার ডে ডিম উৎপাদনে ৪০ লক্ষ বাড়াতে হবে। 

আরও পড়ুন, প্লেসমেন্টে নতুন রেকর্ড আইআইএম কলকাতার, গড় বেতন ২৮ লক্ষ

সূত্রের খবর, গত ২০১৮- ১৯ এ যেখানে এক কোটি হাঁস এবং মুরগীর বাচ্চা দেওয়া হয়েছিল। সেখানে এবছর দেড় কোটি হাঁস এবং মুরগির বাচ্চা দেওয়া হবে বিভিন্ন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর হাতে। ইন্ডিভিজুয়ালি ও স্বনির্ভর গোষ্ঠীর হাতে হাঁস ও মুরগির বাচ্চা তুলে দেওয়ার উদ্দেশ্য, একদিকে ডিমের উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রাকে পূরণ করা এবং মানুষের আয় ও রোজগারের ব্যবস্থা করা।