রাজনীতি থেকে অপরাধ, মানুষের সুখ,দুঃখের খবর থেকে আরও রকমারি ঘটনা- সময়ের সঙ্গে ঘটে চলে একের পর এক নিউজ। তার মধ্য়ে থেকেও বেছে আনা কিছু খবর। সময়ে সময়ে যার আপডেট পাবেন আপনি। তাই কলকাতাকে জানতে খবরে থাকুন,খবর রাখুন।

১)বাগুইআটি ফলের বাজারে বিধ্বংসী আগুন। আগুনে ভস্মীভূত  ৫টি দোকান। দমকলের ৪টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে। ঘটনাস্থলে বাগুইআটি থানার পুলিশ। লকডাউনের মধ্যেই বাগুইআটি ফলের বাজারে বিধ্বংসী আগুন। ঘটনাস্থলে দমকলের চারটি ইঞ্জিন। জানা গিয়েছে, বাজারের ১০ টা দোকানে এই মুহূর্তে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে দমকল কর্মীরা। রাত সাড়ে ১০ টা নাগাদ আগুন লাগার খবর পেয়েই দোকানদাররা রাস্তায় বেরিয়ে এসেছে। বাগুইআটি ফলের বাজারে বিধ্বংসী আগুন, পুড়ে ছাই একাধিক দোকান...

2)২৪ ঘণ্টার মধ্য়ে বদলে গেল সিদ্ধান্ত। মুখ্য়মন্ত্রী জানিয়ে দিলেন রাজ্য়ে করোনা সংক্রমণ রুখতে হটস্পট বলে কিছু হচ্ছে না। তবে স্পর্শকাতর এলাকাগুলিতে শুধু বিশেষ নজরদারি চালাবে প্রশাসন। কমপ্লিট লকডাউন হচ্ছে না, রাজ্য়ে হটস্পট-এর বদলে 'মাইক্রো প্ল্যানিং'.

3) করোনো আতঙ্কে বাড়ানো হচ্ছে সময়সীমা। আগামী ১০ জুন পর্যন্ত রাজ্যে বন্ধ থাকছে সমস্ত স্কুল-কলেজ। শনিবার নবান্নে এই ঘোষণা করেছেন মুখ্য়মন্ত্রী। তিনি বলেন,অনলাইনে যেভাবে পড়াশোনা হচ্ছে সেভাবেই চলবে। যেহেতু লকডাউন ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হচ্ছে তাই আগামী ১০ জুন পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ  রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ১০ জুন পর্যন্ত বন্ধ রাজ্যের স্কুল-কলেজ, নয়া ঘোষণা মুখ্য়মন্ত্রীর.

4) রুজি-রোজগারের কথা  ভাবতে যাওয়ার ভয়ানক পরিস্থিতির মুখোমুখি হচ্ছে বাংলা। কদিন আগেই লকডাউনে ফুল বিক্রেতাদের ছাড়পত্র দিয়েছিল রাজ্য় সরকার। সম্প্রতি হাওড়া ফুল মার্কেটের ছবি দেখে চমকে উঠেছে রাজ্য়বাসী। সোশ্য়াল ডিস্ট্য়ান্সিং তো দূর, ঠেসাঠেসি করে চলছে বাজারের কাজ। সোশ্য়াল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে সেই ছবি।  লকডাউনে গিজ গিজ করছে মানুষ, হাওড়া ফুল মার্কেটে ভয়াবহ দৃশ্য়.

5) কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য় মন্ত্রকের পরিসাংখ্য়ান বলছে ১২৬। অথচ শনিবার বিকেলে নবান্নে মুখ্য়মন্ত্রী জানালেন রাজ্য়ে নতুন করে ৬ জনের শরীরে করোনা পাওয়া গিয়েছে। সব মিলিয়ে রাজ্য়ে এখন করোনা আক্রান্তের সংখ্য়াটা ৯৫। কেন্দ্রের হিসেবে ১২৬, মমতা বলছেন ৯৫ জন আক্রান্ত.

6) লকডাউন নিয়ে কেন্দ্রের তোপের মুখে রাজ্য সরকার। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফ থেকে চিঠি পাঠিয়ে রাজ্য সরকারকে তোপ । কড়া ভাষায় রাজ্যের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। জায়গার নাম উল্লেখ করে বলে দেওয়া হয়েছে কোথায় লকডাউন মানা হয়নি। কলকাতার রাজাবাজার, তপসিয়া, মেটিয়াবুরুজ, নারকেলডাঙা, গার্ডেনরিচ, ইকবালপুর এই প্রতিটি জায়গায় লকডাউন মানা হয়নি বলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে রাজ্যের পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র এবং মুখ্য সচিব রাজীব সিনহার কাছে।লকডাউন ভাঙছে 'মমতার সরকার', রাজ্য়কে কড়া চিঠি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের.

7)অসুস্থ  থেকে সুস্থ হচ্ছেন রোগীরা। মারণ রোগ থেকেও মিলছে পরিত্রাণ। রাজ্য়ে বেলেঘাটা আইডি থেকে একে একে বাাড়ির পথে পা বাড়িয়েছেন একাধিক রোগী। খোদ এই ঘটনায় রাজ্য়ের ডাক্তারদের প্রশংসা করেছেন মুখ্য়মন্ত্রী। কিন্তু কোন পথে করোনা রুখতে সক্ষম হচ্ছেন ডাক্তাররা। কোন মহাঔষধিতে সাড়া দিচ্ছেন রোগীরা ?কোন ওষুধে কুপোকাত করোনা, কত ডোজ দিচ্ছেন রাজ্য়ের ডাক্তাররা

8) করোনা আতঙ্কের মধ্য়েই মহাজাগতিক দৃশ্যের সাক্ষী থাকবে বিশ্ব। এবার পিঙ্ক মুন বা গোলাপি চাঁদের মতো মহাজাগতিক দৃশ্যের মুখোমুখি হতে চলেছে ব্রহ্মাণ্ড। আগামী ৯ এপ্রিল এই ছবি দেখেতে পাবে বিশ্ববাসী। ওইদিন সুপারমুন হিসেবে নিজেকে মেলে ধরবে পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ। আগামী পূর্ণিমাতেই আকাশে দেখা পাওয়া যাবে সুপার মুনের। কলকাতার আকাশে গোলাপি চাঁদ ! করোনার মাঝেই মহাজাগতিক দৃশ্য.

9) এত ভঙ্গ বঙ্গদেশ, তবু রঙ্গে  ভরা।  এখানে সবজির দাম কমছে। কিন্তু মদের দাম বেড়ে চলেছে হু-হু করে। তিন.থেকে চারগুণ দামে কালোবাজারি হচ্ছে বাংলা মদের! আর দ্বিগুণ দামে বিকোচ্ছে রয়ালস্টাগ আর রাম!.লকডাউনের বাজারে হু-হু করে বাড়ছে 'বাংলার' দা

10) আগামী ৩০ মার্চ পর্যন্ত এই রাজ্যে জারি থাকবে লকডাউন। শনিবার নবান্নে এক সাংবাদিক বৈঠকে এই ঘোষণা করেন.মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী। ওই বৈঠকেই দেশে লকডাউন আরও ১৫ দিন বাড়ানো নিয়ে আলোচনা হয়।..বাংলায় লকডাউন ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর..