রবিবার শহর কলকাতার আকাশ সারাদিনই আংশিক মেঘলা থাকবে। বৃষ্টি হলেও নিম্নচাপের জেরে মেঘ সরবে না। আকাশ হাওয়া অফিস জানিয়েছে,  রবিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৩.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। জোড়া ঘূর্ণাবর্তের জেরে বজ্রবিদ্য়ুৎ সহ ঝড়-বৃষ্টি সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতা সহ রাজ্যে। প্রধানত সোমবার থেকে নিম্নচাপের প্রভাবে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। 

আরও পড়ুন, লকডাউনে করোনা আক্রান্তের সঙ্গেই মদ্যপান, সাত বন্ধু পরিবার সহ ৪০ জন কোয়ারেন্টিনে

হাওয়া অফিস জানিয়েছে,  রবিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৩.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। শহরের বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৫ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম ৬২ শতাংশ। শনিবার  গত ৪৮ ঘণ্টায় কলকাতার আলিপুর এ বৃষ্টি হয়েছে ২১.১ মিলিমিটার। রবিবার এই মুহূর্তে শহর কলকাতার তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আসাম ও উত্তরপ্রদেশে রয়েছে দুটি ঘূর্ণাবর্ত। এই দুটি ঘূর্ণাবর্তের জেরে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকে বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি করছে। যার জন্য আগামী কয়েকদিন ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা রাজ্যে। দক্ষিণবঙ্গে ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি। সোমবার থেকে ঝড় বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে। পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়াতে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা।

আরও পড়ুন, পরকীয়ার জের নদিয়ায়, কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বৌদিকে খুন করে আত্মঘাতী দেওর

অপরদিকে, নিম্নচাপটি  দক্ষিণ আন্দামান সাগর থেকে ক্রমশ পরবর্তী ২৪ ঘন্টায় আরও শক্তি বাড়িয়ে অতি গভীর নিম্নচাপ রূপে অবস্থান করবে আন্দামান সাগর ও দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে। ক্রমশ শক্তিশালী হয়ে এটি উত্তরও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হবে ৫ থেকে ৬ মে পর্যন্ত। তবে এখনও এটি ঘূর্ণিঝড় হবে কিনা তা সম্পর্কে নিশ্চিত করে বলতে পারেনি আবহাওয়া দপ্তর। তবে এর অভিমুখ পরবর্তীতে উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে ৭০ কিলোমিটার ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে প্রবেশ করতে পারে মায়ানমার ও বাংলাদেশ উপকূলে। 

 

 

এনআরএস-এ ৮ জনের শরীরে করোনা, আক্রান্তদের ৬ জন স্ত্রী রোগ বিভাগে ভর্তি

 করোনা আক্রান্ত এবার জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের এক পুলিশকর্মী, বাঙ্গুর হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন

টিকিয়াপাড়া কাণ্ডে কড়া পদক্ষেপ নিল পুলিশ, গ্রেফতার প্রধান অভিযুক্ত শাকিব সহ আরও ১৩

রোগী ফেলে পালাতে পারল না অ্যাম্বুল্যান্স, পিপিই পরা স্বাস্থ্য়কর্মীদেরকে তীব্র প্রতিবাদ নাকতলাবাসীর