দেশে চলমান লকডাউনের মধ্যে এয়ারটেল তার প্রিপেইড গ্রাহকদের দিল এক বড় স্বস্তি। এই সংস্থা তাদের সমস্ত প্রিপেইড পরিকল্পনার মেয়াদ আগেই বাড়িয়েছে। এর জন্য গ্রাহকদের নতুন করে রিচার্জ করার প্রয়োজন পরেনি। অর্থাৎ প্রিপেইড গ্রাহকদের লকডাউনের সময় ফোন রিচার্জ না করেই ইনকামিং কল এর সুবিধা চালু রেখেছিল সংস্থা। যাতে লকডাউনের মত এমন চরম সঙ্কটে গ্রাহকরা তাঁদের মোবাইল পরিষেবা অব্যাহত রাখতে পারে।

আরও পড়ুন- অ্যাপেল-এর পর এবার আরও এক সংস্থা, করোনার জেরে চিন থেকে ব্যবসা গুটিয়ে ভারতে আনতে আগ্রহী

এবার লকডাউনের মেয়াদ বাড়তেই অভিনব এক সিদ্ধান্ত নিয়েছে এয়ারটেল। সংস্থা জানিয়েছে মাত্র ৯৮ টাকার রিচার্জেই আগে প্রিপেইড গ্রাহকরা পেত ৬ জিবি ডেটা। সেই প্যাকেজ দ্বিগুণ করে ওই একই টাকার রিচার্জে প্রিপেইড গ্রাহকরা পাবে ১২ জিবি ডেটা।  এই প্ল্যানে দ্বিগুণ ডেটার পাশাপাশি গ্রাহকরা পাবে ২৮ দিনের ভ্যালিডিটি। তবে এই প্ল্যান শুধু ডেটার জন্যই প্রযোজ্য। এই প্ল্যান রিচার্জ করলে আলাদা কোনও কলিং বা ম্যাসেজিং এর সুবিধা পাওয়া যাবে না। কলিং বা টকটাইমের জন্য রয়েছে ভারতী এয়ারটেল এর অন্যান্য প্ল্যান। 

আরও পড়ুন- লকডাউনের বাম্পার অফার, এই প্ল্যানে দ্বিগুন হাইস্পিড ডেটা দিচ্ছে জিও

টেলিকম বিশেষজ্ঞদের মতে, রিলায়েন্স জিও ১০১ টাকায় দেয় ১২ জিবি ডেটা, সেই প্ল্যানকে টেক্কা দিতেই লকডাউনে এই ডেটা প্ল্যান নিয়ে এসেছে এয়ারটেল। তবে এয়ারটেলের ডেটা প্ল্যান ছাড়াও অন্যান্য প্ল্যানগুলিতেই মিলছে সুবিধা। ৫০০ টাকার রিচার্জে আগে পাওয়া যে ৪২৩.৭৩ টাকার টকটাইম। এখন তা বেড়ে গ্রাহকরা পাচ্ছে ৪৮০ টাকার টকটাইম। একইভাবে এক হাজার টাকার রিচার্জে মিলছে ৯৬০ টাকার ও ৫০০০ টাকার রিচার্জে মিলছে ৪৮০০ টাকার টকটাইমের সুবিধা।