Asianet News BanglaAsianet News Bangla

পালিত হচ্ছে বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস, জেনে নিন দিনটি পালনের উদ্দেশ্য কী

পালিত হচ্ছে বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস। আত্মহত্যা প্রসঙ্গে সতর্ক করতে পালিত হয় দিনটি। ২০০৩ সালে সর্বপ্রথম পালিত হয়েছিল এই দিনটি। ১৯৯৯ সালের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এ বিষয়ে নেওয়া কিছু পদক্ষেপেও আলোকপাত করা হয়। যেখানে আত্মহত্যা বন্ধ করার জন্য নির্দিষ্ট কৌশল নির্ধারণ করা হয়।

Know the history and significant of world suicide prevention day ABSC
Author
First Published Sep 10, 2022, 5:53 PM IST

পালিত হচ্ছে বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস। প্রতিদিন শয় শয় মানুষের মৃত্যু হয় আত্মহত্যার কারণে। ডিপ্রেশন, ব্যর্থতা, অভাবের মতো নানান কারণে অনেকেই আত্মহত্যার পথ বেছে নয়। জীবনের চলার পথে কঠিন পরিস্থিতি আসতেই পারে। তাই বলে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়ে এভাবে পালিয়ে যাওয়া মোটেও ঠিক কথা নয়। এমন বার্তা প্রচারে পালিত হচ্ছে বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস।

আত্মহত্যা প্রসঙ্গে সতর্ক করতে পালিত হয় দিনটি। ২০০৩ সালে সর্বপ্রথম পালিত হয়েছিল এই দিনটি। ১৯৯৯ সালের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এ বিষয়ে নেওয়া কিছু পদক্ষেপেও আলোকপাত করা হয়। যেখানে আত্মহত্যা বন্ধ করার জন্য নির্দিষ্ট কৌশল নির্ধারণ করা হয়। আত্মহত্যার প্রবণতা রোধ ও এ বিষয়ে সচেতন করার জন্যই পালিত হচ্ছে বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস। 

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রিপোর্টে জানা গিয়েছে, চলতি বছরের প্রথম ৮ মাসে দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৩৬৪ জন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১৯৪ শতাংশ স্কুলগামী শিক্ষার্থী।

২০১৪ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রকাশিক এক প্রতিবেদন অনুসারে, প্রতি বছর বিশ্বে ৮ লক্ষেরও বেশি মানুষ আত্মহত্যা করে। পারিবারিক নির্যাতন, কলহ, শারীরিক-মানসক নির্যাতন, পরীক্ষা, প্রেমে ব্যর্থতা, দারিদ্রতার কারণে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন সকলে। এই আত্মহত্যা বন্ধ করতে পালিত হচ্ছে বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস। এই বিশেষ দিনে নানা স্থানে নানা কর্মসূচি পালিত হয়। আত্মহত্যা কীভাবে বন্ধ করা যায়, সে বিষয়ে সতর্কতা প্রচার করা হয়।  

এদিকে দুদিন আগে বিশ্ব জুড়ি পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবস। প্রতি বছর ৮ সেপ্টেম্বর দিনটি বেছে নেওয়া হয় আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবস হিসেবে। এই দিনটি পালনের প্রধান উদ্দেশ্য হল স্বাক্ষরতা ও তার প্রয়োজনীয়তা প্রসঙ্গে সকলকে সতর্ক করা। সঙ্গে শিক্ষার বিস্তার ঘটানো। বছরের পর বছর ধরে অগ্রগতি হওয়া সত্ত্বেও সাক্ষরতার চ্যালেঞ্জগুলো রয়ে গিয়েছে। বর্তমানে অন্তত ৭৭১ মিলিয়ন যুবক ও প্রাপ্তবয়স্কদের মৌলিক সাক্ষরতার দক্ষতার অভাব আছে। সে কারণে ১৯৬৬ সালে ২৬ অক্টোবর ইউনেস্কোরা সাধারণ সম্মেলনের ১৪তম অধিবেশনে ইউনেস্কো কর্তৃক আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস হিসেবে ৮ সেপ্টেম্বর দিনটি বেছে নেওয়া হয়। 
এমনই প্রায়শই পালিত হয় বিশেষ দিন। কদিন আগেই ছিল টিচার্স ডে। তেমনই অগস্ট মাস জুড়ে ছিল একাধিক বিশেষ দিন। কদিন আগে ছিল ইন্টারন্যাশনল বিয়ার ডে। তার আগে পালিত হয়েছে ফ্রেন্ডশিপ ডে। 

 
 

আরও পড়ুন- নগ্ন থাকাতেই স্বাচ্ছন্দ, শরীর জুড়ে ২৪লাখের ট্যাটু, সোশ্যাল মিডিয়া থেকে কামাচ্ছেন কয়েক লক্ষ টাকা

আরও পড়ুন- পুজোতে ছেলেদের মেকওভারের অন্যতম অংশ দাড়ি গোঁফ, জেনে নিন বিভিন্ন আকৃতির দাড়ি ভিন্ন অর্থ

আরও পড়ুন- ডায়েট-এক্সারসাইজ নয়, শুধু জল পান করেই ওজন কমান পুজোর আগে, কতটা খাবেন জেনে নিন

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios