দেশের স্মার্টফোনের বাজারে প্রতিযোগীতা আরও বাড়িয়ে দিতে মোবাইলের বাজারে হাজির স্য়ামসং গ্যালাক্সি এস টেন লাইট স্মার্টফোন। সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে এই স্মার্টফোনের ছবি সহ স্পেসিফিকেশন। শোনা গিয়েছে এসটেন লাইটে থাকছে ইমেজ স্টেবিলাইজেশন। নতুন বছরের শুরুতেই মোবাইল প্রেমীদের কাছে একগুচ্ছ নতুন ফিচার নিয়ে হাজির হয়ে এই মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা। নতুন এই ফোনটি দেখতে স্য়ামসং গ্যালাক্সি এসটেন লাইট স্মার্টফোনের মতোই দেখতে। জেনে নেওয়া যাক এই স্মার্টফোনের স্পেসিফিকেশন।

আরও পড়ুন- কুয়াশায় গাড়ি চালানোর সময়, সুরক্ষিত থাকতে মনে রাখুন এই নিয়মগুলি

 স্য়ামসং গ্যালাক্সি-র এই স্মার্টফোন নজর কেড়েছে ফোন প্রেমীদের। দেখে নেওয়া যাক ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরার সুবিধাসহ আর কী কী ফিচার রয়েছে স্য়ামসং গ্যালাক্সি এসটেন লাইট স্মার্টফোনে। এই স্মার্টফোনে থাকছে ৬ জিবি এবং ৮ জিবি ব়্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারন্যাল স্টোরেজ ক্যাপাসিটি। এর সঙ্গে থাকছে ৬.৭ ইঞ্চি ফুল এইচডিআর ডিসপ্লে। সেই সঙ্গে রয়েছে সুপার এমোলেড ক্যাপাসিটিভ টাচস্ক্রিন। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে স্য়ামসং গ্যালাক্সি এসটেন লাইট স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যানন্ড্রয়েড ১০.০। সেই সঙ্গে রয়েছে ক্যুয়লকম এসএমএইটওয়ানইাইবজিরো স্ন্যাপড্রাগন এইটফাইবফাইব এর চিপসেট ।

আরও পড়ুন- ডায়মন্ড শেপ ক্যামেরার নজরকারা ডিজাইন, চমৎকার ফিচার-সহ লঞ্চ হচ্ছে এই স্মার্টফোন

এই স্মার্টফোনের ক্যামেরা অত্যন্ত আকর্ষণীয়। সেলফি ক্যামেরার জন্য থাকছে ৩২ মেগাপিক্সেল এইচডিআর ক্যামেরা সেন্সর। প্রাইমারি ক্যামেরা হিসেবে থাকছে ১) ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর ২) ১২ মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ৩) ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স-সহ এলইডি ফ্ল্যাস, প্যানোরোমার সুবিধা। একই সঙ্গে স্য়ামসং গ্যালাক্সি নোট টেন লাইট স্মার্টফোনে থাকছে ফাস্ট চার্জ সাপোর্টের সঙ্গে নন রিমুভেবল ৪৫০০ এমএএইচের ব্যাটারি। ফোনের স্ক্রীনের নীচের দিকে থাকছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেনসর-এর সুবিধা। স্য়ামসং গ্যালাক্সি এসটেন লাইট স্মার্টফোন-এর মূল্য কত হবে সেই বিষয়ে এখনও জানায়নি সংস্থা।