তুলসী পাতার এই সাধারণ গুণাগুণ আমাদের সকলেরই জানা। তুলসী গাছে নানা ঔষধি হিসেবে ব্যবহার করা হয়। সর্দ্দি, কাশি, ঠাণ্ডা লাগা ইত্যাদি নানা সমস্যায় তুলসী ব্যবহার করা হয়। এ গাছের রস কৃমি ও বায়ুনাশক। ঔষধ হিসাবে এই গাছের ব্যবহার্য অংশ হল এর রস, পাতা এবং বীজ। আয়ুর্বেদিক ওষুধ হিসেবে তুলসীর গুণ সকলেরই জানা। তবে কয়েকটা তুলসী পাতা যে এত কাজেও আসতে পারে, তা জানলে অবাক হবেন। শুধু সর্দিকাশিতেই নয়, বরং রূপচর্চাতেও বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে তুলসীর। এই লকডাউনের সময়ে ত্বকের যাবতীয় সমস্যা সমাধানের জন্য তুলসী পাতা ব্যবহার করতে পারেন। জেনে নেওয়া যাক তুলসী পাতা দিয়ে তৈরি কয়েকটি সহজ প্যাক। 

আরও পড়ুন- লকডাউনে বারতি ওজন নিয়ে চিন্তা, শিল্পার টোটকাতেই রইল নিয়ন্ত্রণে রাখার সহজ উপায়

আপনার যদি ব্ল্যাকহেডস আর হোয়াইটহেডস-এর সমস্যা থাকে তবে তুলসী পাতা দিয়ে বানিয়ে নিন একটি ফেস প্যাক। এর জন্য মুলতানি মাটি, মধু, পাতিলেবুর রস ও তুলসী পাতা বাটা। একসঙ্গে মিশিয়ে একটি পেস্ট বানিয়ে নিন। এয়ার টাইট কন্টেনারে ভরে রেখে দিন। প্রতিদিন এই ফেস প্যাক ব্যবহার করুন। এক মাসেই তফাৎটা আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন।  ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির জন্য তুলসী পাতা ভালো করে ধুয়ে বেটে নিয়ে ফেস প্যাকের মত মুখে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন। তুলসি পাতায় প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডান্ট যা ত্বক সতেজ রাখতে সাহায্য করে। পাশাপাশি ত্বক রিফ্রেসও রাখে।

আরও পড়ুন- ঘরবন্দিতে অনেকেই ভুগছেন মানসিক অবসাদে, সারাদিনের ক্লান্তি ও চাপের পরেও মন রাখুন ফুরফুরে

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির জন্য, দাগহীন ত্বক পেতে তুলসীর পাউডারের সঙ্গে হলুদ গুঁড়ো ও লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি ত্বকের যাবতীয় সমস্যা মিটে যাবে সহজেই। ত্বকে যদি ব্রণর সমস্যা থাকে সে ক্ষেত্রে চন্দন বাটা, গোলাপ জলের সঙ্গে তুলসী পাতার রস একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। সেই পেস্ট ব্রণ আক্রান্ত ত্বকে লাগান। কিছুদিনের মধ্যেই ব্রণর সমস্যা কমে যাবে। এমনকী ব্রণর জেদী দাগও মুছে ত্বক উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। এই প্যাক এতটাই কার্যকারী যে চির জীবনের মত ব্রণর সমস্যা মিটিয়ে দিতে সাহায্য করে।