চুল উঠে টাক পড়ে যাওয়ার মত সমস্যা যাদের আছে তারাই জানেন এটি কোন ধরনের সমস্যা। মাথায় টাক পড়ার সমস্যা দিনে দিনে বাড়তে থাকলে অবশ্যই ব্যবস্থা নিন। এই সমস্যার সমাধান করতে প্রথমেই ব্যয়বহুল চিকিৎসায় না গিয়ে এর প্রতিকার শুরু করুন ঘরোয়া উপায়ে। তবে বেশ কিছু কারন আছে, যেগুলি এই টাক পড়ে যাওয়ার মত সমস্যার জন্য দায়ী। এমন কিছু সমস্যার মধ্যে প্রধান কয়েকটি কারন জেনে নেওয়া যাক।

আরও পড়ুন- ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে কমিয়ে ফেলুন ওজন, রইল সহজ উপায়

খাদ্যাভ্যাস অনেকাংশেই টাক পড়ার জন্য দায়ী। খাদ্য তালিকায় জিঙ্ক, ভিটামিন, আয়রন ও সিলিকার পরিমান কমে গেলে চুল উঠে যাওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে থাকে। সেই থেকে টাক পড়ার সমস্যা দেখা দেয়। এর জন্য চুলে নিয়মিত ক্যাস্টর অয়েল ও ভিটামিন ই একটি ক্যাপসুন একসঙ্গে স্ক্যাল্পে ম্যাসাজ করুন, উপকার পাবেন।

অনেক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে অ্যানিমিয়ার সমস্যা মহিলাদের মধ্যেই বেশি দেখা গেলেও পুরুষদের মধ্যেও এই সমস্যায় ভোগার প্রবণতা দেখা যায়। রক্তশূন্যতা বা রক্তাল্পতা বা রক্তস্বল্পতা হল রক্তে রক্তকণিকা স্বল্পতা অথবা রক্তের পরিমাণ বা অক্সিজেনবাহী রক্তরঙ্গক হিমোগ্লোবিনের অভাব। টাক পড়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ রক্তাল্পতা বলেও জানাচ্ছেন চিকিত্সকরা।

আরও পড়ুন- এই খাবারগুলি কখনোই একসঙ্গে নয়, হতে পারে মারাত্মক বিপদ

একইভাবে কাজের চাপ, অতিরিক্ত স্ট্রেসের কারণে ঘুম কম হয়। অনেকদিন এই একই পরিস্থিতি চলতে থাকলে তার প্রভাব পড়ে স্বাস্থ্যের ওপর। যারে ফলে চুল পড়ার সমস্যাও হতে পারে। আবার চিকিৎসকদের মতে, যে কোনও বি ভিটামিনের অভাব হলেও চুলের স্বাস্থ্য খারাপ হয়। যারা শাক-সব্জি, ফল কম খান তারা এই সমস্যায় বেশি ভোগেন।

 এছাড়াও বেশ কিছু ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশনের কারণে চুলের ফলিকল নষ্ট হয়ে টাক পড়ার মত সমস্যা দেখা গিয়েছে। দূষণ, খাবার হজমে গন্ডগোল, শরীরে জলের অভাবের কারনেও দ্রুত চুল উঠে গিয়ে টাক পড়ার মত সমস্যা দেখা গিয়েছে।