দিনে দিনে  কমছে তাপমাত্রা আর শুষ্ক হয়ে আসছে আবহাওয়া। তাই এই মরশুমেই বিশেষ যত্নের প্রয়োজন চুলের। তাই এই মরশুমে সুন্দর স্বাস্থ্যজ্জ্বল চুল পেতে শুধু তেল আর শ্যাম্পুই যথেষ্ট নয়। চুলের এই সময় প্রয়োজন বাড়তি যত্নের। দূষণময় পরিবেশে চুলের যত্ন নিতে প্রয়োজন চুলের আগাগোড়া যত্ন। তবে কর্মব্যস্ত এই জীবনে সময় নিয়ে চুলের যত্ন নেওয়ার মত সুযোগ বা সময় পাওয়াটা খুব দুষ্কর। তাই চটজলদি বা তাড়াহুড়োর মধ্যে খুব কম সময়ে তৈরি হতে গেলে, সব সময় চুলে শ্যাম্পু করার প্রয়োজন নেই। শ্যম্পু ছাড়াই চুলের হাল বদলে ফেলুন বিশেষ কয়েকটি টোটকায়। 

আরও পড়ুন- মোবাইলের স্ক্রিনে দাগ পড়ে গেছে, মুশকিল আসান হবে এই সহজ উপায়ে

প্রতিদিন একই নিয়মে চুল আঁচড়ালে চুল তাতে সেট হয়ে যায়। মুখের আদলও একই রকম লাগে, তাই কোনও কিছু করতে না পারলে চুলের সিঁথি বদল করে নিন। প্রতিদিনের একঘেয়ে লুক থেকে একদম বদলে যাবে আপনার চেহারা।

চুলের সিঁথি বদল করে ফেললে প্রথম দিকে চুল পুরও ঘেটে যায়, এই পরিস্থিতিতে চুল বশে রাখতে হেয়ার স্প্রে ব্যবহার করে নিতে পারেন। আর তা না থাকলে চুলে ক্যাস্টর অয়েল ব্যবহার করতে পারেন।

কোঁকড়া বা কার্ল চুলের এখন ট্রেন্ড চলছে। তাই হিট না দিয়ে চুল কার্ল করতে না চাইলে রাতে শুতে যাওয়ার আগে ছোট ছোট পার্টে ভাগ করে চুলে বিনুনি করে রাখুন। ঘুম থেকে উঠে বিনুনি খুলে চুল আঁচরে নিন। একেবারে ট্রেন্ডিং হেয়ার স্টাইল রেডি।

আরও পড়ুন- শুধু রান্নায় নয়, পেঁয়াজ দিয়ে সারতে পারে এই রোগগুলিও

যদি চুলের অবস্থা খুব খারাপ থাকে আর চিপচিপে হয়ে থাকে। সে ক্ষেত্রে চুলের গোড়ায় ড্রাই শ্যাম্পু লাগিয়ে নিন। ড্রাই শ্যাম্পু না থাকলে বেবি পাউডার লাগিয়ে নিন। এরপর চুল খুব ভালো করে আঁচড়ে নিন।  যাতে চুলে পাউডারের সাদা ভাব না থাকে। এছাড়া চুল উল্টে ব্লো ড্রাই করে নিন। এতে চুলের তৈলাক্ত ভাব কেটে গিয়ে ভলিউম ফিরে আসবে।

ঘুম থেকে উঠেই বেরোতে হলে, সারারাত চুলে ভাজ পড়ে চুলের অবস্থা খারাপ হয়ে থাকে। সে ক্ষেত্রে চুলে হালকা জল স্প্রে করে নিয়ে, ড্রায়ার দিয়ে আঁচরে শুকিয়ে নিন। চুল একেবারে বাইরে যাওয়ার জন্য রেডি।