সঞ্জীব দুবে-পূর্ব মেদিনীপুরঃ-  প্রয়াত এগরার বিধায়ক সমরেশ দাস। করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর তাঁর লড়াই চলছিল। কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে  শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। সোমবার ভোর চারটে পনেরো নাগাদ তাঁর মৃত্যু হয় । বর্ষীয়ান এই রাজনীতিকের মৃত্যুর খবরে শোকের ছায়া রাজনৈতিক মহলে।

আরও পড়ুন, করোনা আক্রান্ত রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরি, উদ্বেগ বাড়ল মালদায়

 প্রায় দীর্ঘ একমাস ভর্তি থাকার পর সোমবার ভোরবেলা কলকাতার হাসপাতালে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এলাকায় শোকের ছায়া। ১৮ জুলাই করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হন এগরার বিধায়ক সমরেস দাস । তিনি পঞ্চম তৃনমূল বিধায়ক যিনিএই ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছিলেন।পরিবারের বাকী সদস্যদের সাথে বিধায়ক সমরেশ দাসও তাঁর লালারস পরীক্ষা করেছিলেন। জানা গেছে, বিধায়ক তথা বলাগেড়িয়া সেন্ট্রাল কো অপারেটিভ ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান সমরেশ দাস করোনাতে আক্রান্ত হলেও তাঁর পরিবারের বাকী সদস্যরা নেগেটিভ ছিলেন। প্রথমে তাঁকে পাঁশকুড়াতে বড়মা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে কলকাতাতে স্থানান্তরিত করা হয়। 

আরও পড়ুন, উদ্বেগে রাখছে উর্ধমুখী গ্রাফ, একদিনে রাজ্য়ে আক্রান্ত ৩,০৬৬ জন


উল্লেখ্য ফলতা তৃণমূল বিধায়ক তমোনাশ ঘোষ করোনা আক্রান্ত হন। ২৪  জুন শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। এরপর দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন।  কলকাতার এক বেসরকারি  হাসপাতালে চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন বিধাননগরের বিধায়ক। পানিহাটির বিধায়ক তথা বিধানসভার তৃণমূলের মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। অপরদিকে  কুমারগঞ্জের বিধায়ক তোরাফ হোসেন মন্ডল করুণা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন।

 

      

 

কোভিড রোগী ভর্তিতে ৫০ হাজার টাকার বেশি নেওয়া যাবে না, নয়া নির্দেশিকা জারি রাজ্যের

ভয় নেই করোনায়, মেডিক্য়ালের ৪ তলার কার্নিশে পা দোলাচ্ছে রোগী

ভুয়ো টেস্টের ফাঁদে পড়ে করোনায় মৃত্যু এক ব্য়াক্তির, গ্রেফতার প্রতারণা চক্রের ৩ জন

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

   পূর্ব ভারতের প্রথম সরকারি প্লাজমা ব্যাঙ্ক-কলকাতা মেডিকেল, করোনা রুখতে প্রস্তুতি তুঙ্গে