Asianet News BanglaAsianet News Bangla

আইনের ঘেরাটোপে ইমরান খান- সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা, লাগাম ভাষণে

প্রাক্তন পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে গ্রেফতারির তোড়জোড় শুরু করেছে পাক সরকার। ইতিমধ্যেই নতুন পাক-সরকার ইমরান খানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনের অধীনে এফআইআর দায়ের করেছে।

Pakistan government is preparing to arrest Imran Khan, his live speech has been blocked bsm
Author
Kolkata, First Published Aug 21, 2022, 10:53 PM IST

প্রাক্তন পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে গ্রেফতারির তোড়জোড় শুরু করেছে পাক সরকার। ইতিমধ্যেই নতুন পাক-সরকার ইমরান খানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনের অধীনে এফআইআর দায়ের করেছে। ইসলামাবাদের একটি সমাবেশে ভাষণ দেওয়ার সময় দেশের এক  বিচাকর ও দুই শীর্ষ প্রশাসনিক কর্তাকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ইমরানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

ইমরান খানের বিরুদ্ধে রীতিমত গুটি সাজিয়েই আসরে নেমেছে পাকিস্তান সরকার। পাকিস্তানের প্রথম সারির মিডিয়া  শনিবার সন্ধ্যায় দ্যা ডন জানিয়েছে, শনিবার সন্ধ্যায় ইমরান খান F-9 পার্কে অনুষ্ঠিত জনসভায় রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানকে সরাসরি হুমকি দিয়েছিলেন। সেখানেই তিনি উসকানিমূলক ভাষণ দিয়েছিলেন।- এমনই অভিযোগ দায়ের হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। আর সেই কারণ দেখিয়ে ইমরান খানের বক্তব্যের লাইভ সম্প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। পাকিস্তানের ইলেকট্রনিক্স মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি জানিয়েছে, ইমরানের রেকর্ড করা ভাষণ কার্যত পর্যবেক্ষণ ও এডিট করে সম্প্রচার করা হবে। তাতে নিয়ন্ত্রণ থাকবে পাকিস্তান সরকারের। 

পাক সরকারের অভিযোগ ইমরান খান তাঁর ভাষণে ভিত্তিহীনভাবে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্টান ও কর্মকর্তাদের টার্গেট করছেন। তাদের বিরুদ্ধে উসকানিমূলক ভাষণ দিচ্ছেন ও বিদ্বেষ ছড়াচ্ছেন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য এটি সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। দেশের শান্তি বিঘ্নিত হতে পারে। সেই কারণেই ইমরানের ভাষণের ওপর রাশ টানা হচ্ছে। 

ইমরান খান শনিবার এখানে একটি জনসমাবেশে ভাষণ দেওয়ার সময়, তার সহযোগী শাহবাজ গিলের সাথে আচরণের জন্য শীর্ষ পুলিশ কর্মকর্তা, একজন মহিলা ম্যাজিস্ট্রেট, পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন এবং রাজনৈতিক বিরোধীদের বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি দিয়েছিলেন, যাকে গত সপ্তাহে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ রবিবার বলেছেন যে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) প্রধানের বক্তৃতা সেনাবাহিনী এবং অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকে লক্ষ্য করার প্রবণতার ধারাবাহিকতা। পাল্টা ইমরানের দল তেহরিক ই ইনসাফ দাবি করেছে পাকিস্তানে ইন্টারনেট পরিষেবা ইচ্ছেকৃতভাবে ব্যাহত হয়েছে। 

ইমরান খান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী  থাকাকালীন  ভারতের বিদেশনীতির ঢালাও প্রশংসা করেছিলেন । ক্ষমতা চলে যাওয়ার পরেও নিজের অবস্থানে অনড় রইলেন তিনি। এবার অবশ্য আরও একধাপ এদিয়ে ইমরান খান লাহরের জনসভায় ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের একটি ভিডিও ক্লিপ চালিয়ে দিলেন। যা নিয়ে রীতিমত তোলপাড় হচ্ছে পাকিস্তানের রাজনীতি। স্লোভাকিয়ায় অনুষ্ঠিত ব্রাতিস্লাভা ফোরাম ভাষণ দিয়েছিলেন জয়শঙ্কর। সেই অনুষ্ঠানের ভিডিও ক্লিপ নিজের দল অর্থাৎ পাকিস্তান তেহরিক ই ইসনাফ পার্টির সমাবেশে চালিয়ে দেন ইমরান খান। 

লজের বন্ধ ঘরে বান্ধবীর সঙ্গে একান্তে সময় কাটাল খুনের আসামী, সৌজন্য পুলিশ
মাঝ আকাশে ধোঁয়া, তড়িঘড়ি কলকাতা বিমানবন্দরে অবতরণ ইন্ডিগোর বিমান

তিলক লাগান - সাফল্য থাকবে মুঠোর মধ্যে, জানুন টিকার বৈজ্ঞানিক ভিত্তি ও উপকারিতা

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios