বিশ্বকাপ ফাইনালের টিকিটের সর্বোচ্চ দাম ১.২৭ লক্ষ টাকা, সর্বনিম্ন ৮ হাজার

| Nov 29 2022, 01:18 AM IST

FIFA World Cup Trophy

সংক্ষিপ্ত

বিশ্বকাপের যে কোনও ম্যাচেরই টিকিটের চাহিদা থাকে, তবে ফাইনালের টিকিটের চাহিদা থাকে সবচেয়ে বেশি। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

এবারের বিশ্বকাপ ফাইনাল যাঁরা দেখতে যাচ্ছেন, তাঁরা যদি কাতারের লুসেইল স্টেডিয়ামে সবচেয়ে ভাল জায়গায় বসে ম্যাচ দেখতে চান, তাহলে খরচ করতে হবে ভারতীয় মুদ্রায় ১.২৭ লক্ষ টাকা। দৃষ্টি বাধাপ্রাপ্ত হবে না এমন জায়গায় ভালভাবে বসে ম্যাচ দেখার জন্য ফিফার পক্ষ থেকে ৪ ধরনের টিকিট রাখা হয়েছে। এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ টিকিটের দাম রাখা হয়েছে ভারতীয় মুদ্রায় ১.২৭ লক্ষ টাকা। এর পরের ধাপের টিকিটের দাম ভারতীয় মুদ্রায় ৭৯ হাজার টাকা। তৃতীয় ধাপের টিকিটের দাম ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৪৮ হাজার টাকা। চতুর্থ ধাপের টিকিটের দাম ভারতীয় মুদ্রায় ১৬ হাজার টাকা। দৃষ্টি বাধাপ্রাপ্ত হবে এমন জায়গার টিকিটের সর্বোচ্চ দাম ভারতীয় মুদ্রায় ৩৮ হাজার টাকা। এক্ষেত্রে দ্বিতীয় ধাপের টিকিটের দাম ভারতীয় মুদ্রায় ২৯ হাজার টাকা। তৃতীয় ধাপের টিকিটের দাম ভারতীয় মুদ্রায় ১৯ হাজার টাকা। সবচেয়ে কম দামের টিকিট পাওয়া যাবে ভারতীয় মুদ্রায় ৮ হাজার টাকায়। তবে এখন আর বোধহয় কোনও টিকিট অবিক্রিত নেই। অনেকদিন আগেই সব টিকিট বিক্রি হয়ে গিয়েছে।

লুসেইল স্টেডিয়ামে দর্শকাসন ৮০ হাজার। কাতারে যে ৮টি স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ম্যাচ হচ্ছে, সেগুলির মধ্যে লুসেইল স্টেডিয়ামেই সবচেয়ে বেশি দর্শকাসন রয়েছে। ফিফার ওয়েবসাইটে দেখা যাচ্ছে, গ্যালারির আসন থেকে দৃষ্টি বাধাপ্রাপ্ত হবে না এমন জায়গার সবচেয়ে কম দামের টিকিট শুধু কাতারের নাগরিকদের জন্যই সংরক্ষিত। অন্য দেশের কেউ এই টিকিট কিনতে পারবেন না। বিদেশি নাগরিকদের জন্য সবচেয়ে কম দামের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে ২২ হাজার রিয়াধে, যা ভারতীয় মুদ্রায় ৪৭ হাজার ৮০২ টাকা।

Subscribe to get breaking news alerts

২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপে টিকিটের যে দাম ছিল, তার চেয়ে কাতার বিশ্বকাপে টিকিটের দাম প্রায় ৪০ শতাংশ বেশি। রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে টিকিটের দাম ভারতীয় মুদ্রায় গড়ে ৬৭ হাজার টাকার মতো ছিল। সেখানে কাতারে টিকিটের দাম ৫৯ শতাংশ বেশি।

১৮ ডিসেম্বর কাতার বিশ্বকাপের ফাইনাল। ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা বা পর্তুগাল যদি ফাইনালে পৌঁছতে পারে, তাহলে টিকিটের চাহিদা আকাশছোঁয়া হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে যাঁরা আগাম টিকিট কেটে রেখেছেন, তাঁদের সুবিধা হবে। টিকিটের কালোবাজারির আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। সারা বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরা বিশ্বকাপ ফাইনাল দেখতে চান। ৪ বছর অন্তর একবার এই সুযোগ পাওয়া যায়। সেই কারণেই টিকিটের এত চাহিদা।

আরও পড়ুন-

ক্যাসেমিরোর অসাধারণ গোল, সুইৎজারল্যান্ডকে ১-০ হারিয়ে নক-আউটে ব্রাজিল

সার্বিয়ার বিরুদ্ধে অসাধারণ লড়াই, ১-৩ পিছিয়ে পড়েও ড্র ক্যামেরুনের

অবশেষে মেসি ম্যাজিকে মেক্সিকো-বধ, বিশ্বকাপে টিকে থাকল আর্জেন্টিনা

 
Read more Articles on