২০০৮ সালে প্রথম ভারতীয় বক্সার হিসেবে অলিম্পিকে পদক জিতেছিলেন বিজেন্দর সিং। ভাপতীয় বক্সিং ইতিহাসের অন্যতম সফল বক্সার তিনি। ২০১৫ সালে অম্যাচার বক্সিং ছেড়ে বিজেন্দর নাম লিখিয়েছিলেন প্রো-বক্সিংয়ে। তারপর থেকে এই চার বছরে ১২টি বাউট জিতেছেন বিজু। প্রো-বক্সিংয়ে একটাও ম্যাচের হারেননি তিনি। সেই বিজেন্দর সিং আগামী বছর বেজিং অলিম্পিকে অংশগ্রহণের ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন। এতদিন প্রো বক্সাররা অলিম্পিকের মত অ্যামেচার বক্সিং প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারতেন না। কিন্তু সেই নিয়ম এবার বদল হয়েছে। তাই বিজেন্দরদের কাছে সুযোগ আছে আবার দেশের হয়ে অলিম্পিকে নামার। কিন্তু একটা শর্ত আছে তাঁর। 

আরও পড়ুন - দশ বছর পর পাকিস্তানে ফিরল টেস্ট ক্রিকেট, এবার ভাবনা শুরু পিঙ্ক বল টেস্টের

অলিম্পিকে খেলার জন্য ভারতীয় বক্সিং ফেডারেশন সব বক্সারদের দুমাস জাতীয় শিবিরে রাখবে ট্রেনিংয়ের জন্য। একই সঙ্গে থাকছে আরও কিছু নিয়ম। যা বিজেন্দরের পক্ষে মানা সম্ভব নয়। বিজু জানিয়েছেন তিনি সোজা কথা বলতে ভালোবাসের। তাই আগে থেকেই নিজের অবস্থান স্পষ্ট করে দিয়েছেন। কিন্তু তার মানে এই নয় যে তাঁকে সরাসরি অলিম্পিক খেলার ছাড়পত্র দিতে হবে। বিজেন্দর বলছেন তিনি দু-তিনটি ট্রায়াল বাউট খেলতে রাজি আছেন। সেটা দেখে যদি তাঁকে দলে নেওয়া সম্ভব হয় তিনি রাজি। না হলে নিজের দাবি পেশ করতে চান না। 

আরও পড়ুন - দুরন্ত ছন্দে লিভারপুল, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে ক্লপের দল, জয় চেলসিরও

নভেম্বরের ২২ তারিখ প্রো-বক্সিংয়ে নিজের শেষ বাউট খেলেছেন বিজন্দর সিং। এবার আগামী বছর দুবাইতে খেলার পরিকল্পনা চালাচ্ছে তার টিম। এর মাঝেই সামনে এসেছে অলিম্পিকে অংশ নেওয়ার কথা। ব্যাডমিন্টন স্টার জোয়ালা গুট্টার অ্যাকাডেমির উদ্বোধনে গিয়ে বিজান্দর নিজের অলিম্পিক খেলার ইচ্ছের কথা জানান। এদিকে ডোপিং নিয়ে রাশিয়ার শাস্তি নিয়েও এদিন মুখ খুলেছেন বিজু। তাঁর মতে ওয়াডা সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই ধরনের সিদ্ধান্ত আগামী দিনে দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে। 

আরও পড়ুন - ক্রীড়া বিশ্বে বড় খবর, ডোপিং কাণ্ডে চার বছরের জন্য নির্বাসিত রাশিয়া