বাংলায় বিধানসভা ভোটের আগে প্রচারে ঝড় তুলতে রাজ্য জুড়ে 'পরিবর্তন যাত্রা'র আয়োজন করেছে বিজেপি। রাজ্যের পাঁচটি জায়গা থেকে রথযাত্রা শুরু হয়ে প্রতিটি বিধানসভা কেন্দ্রে পৌঁছবে। আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি নবদ্বীপ থেকে রথযাত্রার সূচনা করবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। এছাড়াও, কোচবিহার থেকে রথযাত্রার সূচনা করবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই পূর্ব ঘোষিত রথযাত্রা শেষ হওয়ার পরই, কলকাতায় ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে মোদীকে নিয়ে সভা করার চিন্তাভাবনা শুরু করেছে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।

আরও পড়ুন-৯ বছরের নাবালিকে যৌন নিগ্রহ করে খুন, দোষীদের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ জোড়াবাগানে

বিজেপি সূত্রে খবর, এক একটি রথযাত্রা চলবে ২০ দিন পর্যন্ত। সেই রথযাত্রার শেষ হওয়ার পরই, মার্চের শুরুতে প্রধানমন্ত্রীকে মোদীকে নিয়ে সভা করার পরিকল্পনা নিয়েছেন দিলীপ ঘোষরা। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রের দ্বারস্থ হয়ে আর্জিও জানানো হয়েছে। গত ২৩ জানুয়ারি ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুর জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন। এবার আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি হলদিয়ার একটি সরকারি অনুষ্ঠানে হাজির থাকার কথা রয়েছে তাঁর। সেখান থেকে রাজ্যের একাধিক কেন্দ্রীয় প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন-সই নকল নথি জালের অভিযোগ, ED-র প্রাক্তন অফিসার মনোজ কুমারকে তলব বিধাননগর কমিশনারেটের

এদিকে বিজেপির রথযাত্রা বাতিলের দাবিতে জনস্বার্থ মামলা হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে। রথযাত্রা তলাকালীন রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলার অবনতি হতে পারে বলে দাবি করা হয়েছে ওই মামলায়। অন্যদিকে, বিজেপির রথযাত্রায় সায় দিয়েছে রাজ্য সরকার। তবে, যে যে এলাকা দিয়ে রথযাত্রা যাবে, ওই সব এলাকার সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছ থেকে অনুমতি নিতে বলা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসনের কাছে বিজেপি অনুমতি না পেলে আদালতের যায়ার চিন্তাভাবনা শুরু করেছে গেরুয়া শিবির।