বাড়ি ঘেরাও,বিক্ষোভ প্রতিবাদের দিন শেষ। এবার কাটমানি ফেরতের দাবিতে একেবারে পোস্টার ছাপিয়ে প্রতিবাদ জানাল গ্রামবাসীরা। এমনই ঘটনা ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশিয়ারিতে। যদিও বিজেপির দাবি,তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে এহেন পোস্টারে হাত নেই তাঁদের।

সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর কাটমানি ফেরতের বক্তব্যের পরই রাজ্য়জুড়ে শুরু হয় বিক্ষোভ। বহু জেলায় তৃণমূল নেতাদের বাড়ি ঘেরাও করেন অভিযোগকারীরা। বাধ্য় হয়েই ঘর ছাড়তে হয় তৃণমূলের তাবড় নেতাদের। শেষে এই পরিস্থিতির জন্য তৃণমূল নেত্রীকেই কাঠগড়ায় তোলেন অনেক কাউন্সিলর। তাঁদের দাবি,  দিদি নিজেকে সৎ প্রমাণিত করতে গিয়ে সবাই বিপদে ফেলে দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই কাটমানি নিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছে রাজ্য় বিজেপি নেতৃত্ব। এমনকী তৃণমূলের কাটমানি নিয়ে সংসদেও সরব হয়েছেন রাজ্য় বিজেপির সভাপতি তথা মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ। তবে পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশিয়াড়ির আন্দোলন একেবারে ভিন্ন। আবাস যোজনা,বনসৃজন,রাস্তাঘাট নির্মাণ সহ একাধিক সরকারি প্রকল্পে তৃণমূলের বিরুদ্ধে কাটমানির অভিযোগে পোস্টার পড়েছে কেশিয়াড়ি থানার কুকাই বাজার এলাকায়।

আরও পড়ুন : বাগড়া দিল না রাজ্য়,৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্বস্তিতে মুকুল

আরও পড়ুন :রাণুর নকল করে বিতর্কে অভিনেতা, থানায় অভিযোগ হতেই চাইলেন ক্ষমা

ব্লকের আটজন তাবড় তৃণমূল নেতা-নেত্রীর বিরুদ্ধে পোস্টারে ছেয়েছে গোটা এলাকা।কাটমানি ফেরত চেয়ে 'আন্দোলনকারী সভ্য জনসাধারণ'- এর পক্ষ থেকে পোস্টার  লাগানো হয়েছে এলাকায়। বুধবার রাত থেকে কুকাই বাজার এলাকায় পোস্টার লাগানো হয়েছিল। কিন্তু  সকাল হতেই ছেড়া পোস্টার নজরে আসে সবার। যা দেখে এলাকায় আবারও পোস্টার লাগায় গ্রামবাসীদের একাংশ। তাদের অভিযোগ,দীর্ঘদিন ক্ষমতা থাকার পরেও কোনও সাহায্য করেনি ওই তৃণমূলের  নেতারা। উল্টে কাজ করে দিলেই কাটমানি খেয়েছে তারা। 
   
এই ঘটনায় বিজেপি কোনভাবেই জড়িত নয় বলে জানিয়েছে এলাকার বিজেপি নেতৃত্ব। এবিষয়ে বিজেপির জেলা কমিটির সদস্য অর্জুন কুমার দাস বলেন,এই কাজ আমাদের কারও নয়। ক্ষুব্ধ গ্রামবাসীরাই এটা করেছে। হয়তো  ওদের প্রতি অনেকের ক্ষোভ রয়েছে ৷ '  যদিও বিজেপির এই দাবি নস্যাৎ করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। দলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতির দাবি, 'রাজ্যজুড়ে বিজেপি এই নোংরামো করছে ৷ কেশিয়াড়িতেও তারাই এই কাজ করেছে। পুলিশকে পুরো বিষয়টা জানিয়েছি ৷'

আরও পড়ুন : দিলীপের বাড়িতে দেবশ্রী! যোগদান ঘিরে জল্পনা

আরও পড়ুন :কেমন আছেন বুদ্ধদেব, রাজ্যপাল সাক্ষাতে ছবি এল প্রকাশ্যে