এতদিন শুভেন্দু অধিকারীর সমর্থনে পোস্টার, হোর্ডিং দিত দাদার অনুগামী। এবার সরাসরি অফিস খুললেন তাঁরা। শুভেন্দু অধিকারীর সমর্থনে নিজেরাই একটি অফিস তৈরি করেছেন। রাজ্যে এই প্রথমবার শুভেন্দুর সমর্থনে অফিস খুললেন দাদার অনুগামীরা। 

আরও পড়ুন-'চালুনি আবার ছুঁচের বিচার, দলে থেকে ব্ল্যাকমেল নয়', রাজীবকে নিশানা করে কটাক্ষ অরূপের

রাজ্যে দাদার অনুগামীদের প্রথম অফিস চালু হল পুরুলিয়া শহরের সরকার পাড়ায়। রবিবার আনুষ্ঠানিকভাবে এই অফিস উদ্বোধন করলেন তৃণমুলের সাধারণ সম্পাদক গৌতম রায়। অফিস উদ্ভোধন করে তিনি বলেন, ''আমরা দাদার অনুগামী। দাদা যে সিদ্ধান্ত নেবেন, আমরাও সেই পথেই হাঁটবো''। তিনি আরও বলেন, ''তৃণমুল দলটাকে পিকের টিমের কাছে বিক্রি করে দিয়েছে কিছু নেতা। আগে সেইসব নেতাদের বিরুদ্ধে ব‍্যবস্থা নেওয়া হোক। দিদির উন্নয়নের উপর ভরসা নেই সেইসব নেতাদের। একটা বাজারি কোম্পানিকে দিয়ে দল চালানো যায় না''।

আরও পড়ুন-বেনাচাপড়া কঙ্কালকাণ্ডের ৯ বছর পার,ঘরে ফিরছেন সিপিএম নেতা সুশান্ত ঘোষ

২৩ নভেম্বর নভেম্বর দাদার অনুগামীর অন্যতম কাণ্ডারী গৌতম রায়ের পারিবারিক জগদ্ধাত্রী পুজোর উদ্বোধনে এসেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর অনুগামীদের সাথে ওইদিন  বৈঠকও করেছিলেন। সেই নিয়ে জেলার রাজনৈতিকমহলে অনেক জল ঘোলা হয়েছে। জগদ্ধাত্রী পুজোর উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের প্রাক্তন সভাধিপতি বলরামপুরের পোড়খাওয়া তৃণমূল নেতা সৃষ্টিধর মাহাতো। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একই মঞ্চে শুভেন্দুর পাশেই ছিলেন সৃষ্টিধর মাহাতো। এর খেসারত হিসেবে তারপরের দিনই সৃষ্টিধর মাহাতোর ব্যক্তিগত নিরাপত্তা রক্ষী তুলে নেওয়া হয়। যদিও বিষয়টি কে নিয়ে কোনো গুরুত্ব দেয়নি সৃষ্টিধর বাবু। এরপরই, পুরুলিয়া শহরে দাদার অনুগামীর অফিস উদ্ভোধন হওয়ায় জেলার রাজনৈতিক পারদ যে ক্রমশ উর্ধমুখী হচ্ছে বলে মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।