Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Bangladesh Violence: পুলিশের জালে কুমিল্লার সাম্প্রদায়িক হিংসার মূলচক্রী ইকবাল

 বাংলাদেশের কুমিল্লায় সাম্প্রদায়িক হিংসার মূলচক্রী ইকবালকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার  তাঁকে আদালতে পেশ করা হবে। 

 

Police have arrested Iqbal Hossain  the main accused in the communal violence in Cumilla Bangladesh RTB
Author
Kolkata, First Published Oct 22, 2021, 1:16 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক হিংসার ( communal violence in Cumilla Bangladesh) মূলচক্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কুমিল্লায় পুজো মন্ডপে ইসলামদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরান রেখে হিংসা ছড়ানোর উদ্দেশ্যে মূলচক্রীকে চিহ্নিত করা হয়েছিল আগেই। এবার তার চব্বিশ ঘন্টার মধ্য়েই বাংলাদেশের কুমিল্লায় সাম্প্রদায়িক হিংসার মূলচক্রী ইকবালকে ( Iqbal Hossain )গ্রেফতার করেছে পুলিশ ( Bangladesh Police)। শুক্রবার  তাঁকে আদালতে (Court) পেশ করা হবে। 

 

Police have arrested Iqbal Hossain  the main accused in the communal violence in Cumilla Bangladesh RTB

আরও পড়ুন, 'দেশটা কি পাকিস্তানে পরিণত হচ্ছে ', বাংলাদেশকাণ্ডে সরব অপর্ণা, 'প্রলাপ' বলে কটাক্ষ তথাগতর

জানা গিয়েছে, সিসিটিভি সূত্র ধরে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বাংলাদেশের কক্সবাজার এলাকা থেকে বছর পয়ত্রিশের ইকবালকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদিন তাঁকে আদালতে পেশ করা হবে। পুলিশ সূত্রে খবর, সিসিটিভির ওই ফুটেজে দেখা গিয়েছে সপ্তমীর রাতে কুমিল্লার নানুয়াদীঘি এলাকায় এক মসজিৎ থেকে কোরান হাতে নিয়ে বেরোয় এক ব্যাক্তি।কিছুক্ষণ পরেই তাঁকে নানুয়াদীঘির পাড়ে দেখা যায়। তখন তাঁর হাতে আর কোরান ছিল না। তখন তাঁর হাতে দেখতে পাওয়া যায় হনুমানজির গদা। এই ছবিগুলি খতিয়ে দেখেই ইকবাল হোসেন নামের ওই ব্যাক্তিকে সনাক্ত করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। অনুমান,   দুর্গামন্ডপে কোরান রেখে হিংসা ঘটানোর পরিকল্পনা আগে থেকেই নেওয়া হয়েছে। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই দুর্গা পুজোর দেবতার পায়ের কাছে পবিত্র কোরান রেখে অশান্তিতে ইন্ধন দেওয়া হয়েছিল। বৃহস্পতিবার ইকবালকে সনাক্ত করে সেকথা জানিয়েছিল বাংলাদেশ পুলিশ। এরপরেই বাংলাদেশের কুমিল্লায় সাম্প্রদায়িক হিংসার মূলচক্রী ইকবালকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে এই হিংসাকাণ্ডে মোট ৪১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

"

আরও পড়ুন, 'মুখ্যমন্ত্রী চুপ কেন', বাংলাদেশের হিংসা কাণ্ডে রাজ্য সরকারের ভূমিকায় বিস্ফোরক সুকান্ত-দিলীপ

প্রসঙ্গত, কুমিল্লার হিংসার ঘটনার পরই চাঁদপুরের হাজিগঞ্জ চট্টগ্রাম ও বাংশখালি ও কক্সবাজারের পেকুয়া মন্দির এলাকাতে ভাঙচুর ও তাণ্ডবের ঘটনা ঘটে। তারপরেও থামেনি হিংসা। তাণ্ডবলীলা চলে বাংলাদেশের ইসকনের মন্দিরে। শনিবার নোয়াখালির চৌমুহনীতে ইসকন মন্দিরে প্রায় ৫০০ জন দুষ্কৃতী হামলা চালিয়েছে। এরপর  মন্দির সংলগ্ন পুকুরের কাছ থেকে প্রান্ত চন্দ্র নমোদাস নামের এক যুবকের দেহ উদ্ধার হয়। এই হিংসার ঘটনায় জখম হয়েছেন ৩০ জন। পুলিশ সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই বাংলাদেশে এই হিংসার ঘটনার একাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। 

আরও দেখুন, বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios