কিছুদিন আগে পর্যন্তও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে তিনি এখন চাহাল ছিলেন ভারতীয় দলের স্পিন বিভাগের মূল শক্তি। বিদেশির মাটিতে এই দুই স্পিনারের বোলিং ভারতীয় দলকে ম্যাচ জিততে সাহায্য করেছে। কিন্তু বিশ্বকাপের পর ছবিটা কিছুটা হলেও বদলে গেছে। কারণ ওয়েস্ট ইন্ডিজ বা দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজে দলে জায়গা হয়নি কুলদীপের। বাঁহাতি স্পিনারের বদলে রাহুল চাহারকে দেখে নিতে চাইছে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে ভারতীয় টি২০ দল থেকে বাদ যাওয়াকে বড় করে দেখতে নারাজ কুলদীপ। বরং এই সময়টাকে লাল বলের ক্রিকেটে নিজেকে টেস্ট ক্রিকেটের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার সময় বলেই মনে করছে কুলদীপ। 

আরও পড়ুন - ক্রিকেট কেরিয়ারের লড়াই নিয়ে টুইটারে নস্টালজিক পান্ডিয়া

মাইসোরে ভারতীয় এ দলের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা এ দলের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিলেন তিনি। খেলা শেষ হওয়ার পর টি২০ দল থেকে বাদ যাওয়া নিয়ে প্রশ্ন করতেই কুলদীপ বলেন, এখনও পর্যন্ত সীমিত ওভারের ক্রিকেটে আমর পারফরম্যান্স বেশ ভাল। সাদা বলের ক্রিকেটে আমি বেশ স্বাচ্ছন্দ বোধ করি। নির্বাচকরা হয়তো আমায় বিশ্রাম দিতে চেয়েছেন বা দলে কিছু পরির্তবন করতে চেয়েছেন, তাই আমাকে বাইরে রাখা হয়েছে, আমি নির্বাচকদের সিদ্ধান্তকে সম্মান করি। আমার কোনও অভিযোগ নেই। বরং এই সুযোগটাকে আমায় কাজে লাগাতে হবে টেস্ট ক্রিকেটের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্য। কারণ টানা সাদা বলের ক্রিকেট খেললে লাল বলের সঙ্গে মানিয়ে নেওটা বেশ সমস্যার।’

আরও পড়ুন - ভারতীয় দলের অনুশীলনে রাহুল দ্রাবিড়, টেস্ট সিরিজের প্রস্তুতি শুরু বুমরাদের

এখনও পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে ৬৮টি টি২০ ম্যাচ খেলেছেন কুলদীপ। ৮১টি উইকেট তাঁর দখলে। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে চাহাল ও কুলদীপ জুটি আসার পরই অশ্বিন জাদেজা জুটির কার্যত ছুটি হয়েছিয়েছিল। কিন্তু অল রাউন্ডার হিসেবে জাদেজা ফিরে এলেও অশ্বিন এখনও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে দলে ফিরতে পারেননি। এবার টেস্ট ক্রিকেটেও প্রথম দলে জায়গা পাকা করার লড়াই চলবে জাদেজা-কুলদীপ ও অশ্বিনের ওপের। 
আরও পড়ুন - আবারও অধিনায়ক কোহলির সমালোচনায় গম্ভীর, প্রশ্ন তুলছেন আইপিএলে সাফল্যে নিয়ে