কিছুদিন আগেই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে ন্যাশনাল অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি বা নাডা। এবার ভারতীয় জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের নিয়েও কাজ শুরুর পথে নাডা। পুরুষ ও মহিলা দল মিলিয়ে মোট পাঁচ ভারতীয় ক্রিকেটারকে নিয়ে নাডা তৈরি করেছে রেজিস্টার্ড টেস্টিং পুল বা আরটিপি। এই পাঁচ ভারতীয় ক্রিকেটার হলেন চেতেশ্বর পূজারা, রবীন্দ্র জাদেজা, কেএল রাহুল, স্মৃতি মন্দানা ও দীপ্তি শর্মা। এই পাঁচ ক্রিকেটারকে নাডার কাছে তাঁদের বিস্তারিত তথ্য জমা দিতে হবে। এই বিস্তারিত তথ্য কি ভাবে জমা দিতে হবে বা কোন ধরেনর তথ্য এখানে প্রয়োজন এই বিষয় গুলি নিয়ে ক্রিকেটারদের অবগত করতে চলতি মাসের শেষে একটি বিশেষ ক্লাসের ব্যবস্থা করেছে নাডা। ক্লাসটি হবে দিল্লিতে নাডার সদর দপ্তরে। 

আরও পড়ুন - ইতিহাস তৈরির লক্ষ্যে দল, লজ্জার রেকর্ড ওয়ার্নারের

সুত্রের খবর এই পাঁচ ক্রিকেটারকে আগামী তিন মাস, প্রতিদিন নাডাকে এক ঘন্টা করে সময় দিতে হবে। এি সময়ে নাডা ক্রিকেটারদের মূত্রের নমুনা যেমন সংগ্রহ করবে, তেমনেই আরও বিভিন্ন বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য নেবে। তবে যে পাঁচ ক্রিকেটারকে নিয়ে নাডা নিজেদের রেজিস্টার্ড টেস্টিং পুল তৈরি করেছে তাদের বাইরে কোনও ক্রিকেটারকে ডাকা হবে না। আইসিসি’র একটি নিজস্ব ডোপ টেস্টিং টিম রয়েছে। তাদের রেজিস্টার্ড পুলে যে সব ক্রিকেটার আছেন তাদের  নাডার তালিকায় আনা হবে না। কারণ আইসিসি সেই সব ক্রিকেটারদের তথ্য নাডার কাছে জমা দেবে। 

আরও পড়ুন - শিথিল করা হয়েছিল ‘পরিবার নীতি’, তাই গোটা ক্যারেবিয়ান সফরে ছিলেন অনুস্কা, বলছে বোর্ড

বিশ্ব অ্যান্টিডোপিং এজেন্সি কিছুদিন আগেই নাডার ল্যবরটরীকে ছয় মাসের জন্য সাসপেন্ড করেছে। এই অবস্থায় নাডা তাদের স্যাম্পেল দোহায়  পাঠাচ্ছে পরীক্ষার জন্য। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সঙ্গে হাত মেলানোর পর দলীপ ট্রফির ফাইনালে প্রথমাবার ক্রিকেটারদের স্যাম্পেল সংগ্রহ করে। সেই ম্যাচেও ভারতীয় ক্রিকেটের বেশ কিছু পরিচিত নাম ছিল তালিকায়। ছিলেন করুণ নায়ার, ইশান কিসান, জয়দেব উনাটকাটদের। জাতীয় দলের পাঁচ ক্রিকেটারকে নাডা তাদের আরটিপি তে সামিল করায়, নাডার আরটিপের মোট নথিবদ্ধ ক্রীড়াবিদের সংখ্যা হল ১১০ জন।  
আরও পড়ুন - ‘আদর্শ আছে, কিন্তু নকল করি না’ বলছেন নেইমার ভক্ত শুভমান