সাতসকালে চা-বাগানে খেলা করছে চিতাবাঘের শাবক! ঘটনা তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে জলপাইগুড়ি মালবাজারে। চিতাবাঘের শাবকটিকে নজর রেখেছে বনকর্মীদের। তাঁদের অনুমান, শাবকের যখন দেখা মিলেছে, তখন ওই চা বাগানে আশেপাশেই আছে মা চিতাবাঘও। খুব তাড়াতাড়ি সে চা বাগানে আসবে।

আরও পড়ুন: ডুয়ার্সে ফের চিতাবাঘের মৃত্যু, চা বাগানের নালায় মিলল দেহ

জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকালে যখন মালবাজারের নেওরানদী চাবাগান-এ কাজ করছিলেন শ্রমিকরা, তখন বাগানের আবাদি এলাকায় দুটি চিতাবাঘের শাবক দেখতে পান তাঁরা। শাবকগুলি ৩ নম্বর আবাদি এলাকায় খেলা করছিল। ঘটনাটি জানাজানি হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পড়ে চা বাগানে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েন শ্রমিকরা। খবর দেওয়া হয় বনদপ্তরে। মালবাজার ব্লকের বন্য়প্রাণ বিভাগের রেঞ্জার বিভূতিভূষণ দাস  ঘটনাস্থলে যান। চা বাগানে পৌঁছয় বনদপ্তরের কুইক রেসপন্স টিমও। চিতা বাঘের শাবকগুলির নজর রাখছেন বনকর্মীরা।  রেঞ্জার বিভূতিভূষণ দাস বলেন, 'বনদপ্তরের কর্মীদের চা বাগানে মোতায়েন করা হয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি মা চিতা বাঘটিকে চলে আসবে বলে আশা করছি।'

উল্লেখ্য, ডুয়ার্সের চা বাগানে চিতাবাঘের আনাগোনা নতুন নয়। মঙ্গলবারই জলপাইগুড়ির  ধূপগুড়ির মোরাঘাট ও হলদিবাড়ি চা-বাগানের নালায় মিলেছে চিতাবাঘের দেহ। এদিকে আবার জলপাইগুড়ি লাগোয়া আলিপুরদুয়ার জেলার বক্সা অভয়ারণ্যে দুটি ব্ল্যাক পান্থার বা কালো চিতা দেখা মিলেছে। বিরলপ্রজাতির ওই প্রাণীর ছবি ক্যামেরাবন্দি করেছেন টুরিস্ট গাইড।