করোনার সংক্রমণ থেকে অব্য়হত নেই কলকাতা সহ রাজ্য়ে। প্রতিদিনই  আক্রান্তের সংখ্য়ার রেকর্ড ভাঙছে। যার জেরে নতুন করে লকডাউনও ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। এদিকে তার মধ্যেই ঘটে গেল অঘটন।  এনআরএসে চিকিৎসক, নার্স সহ ৩ দিনে আক্রান্ত ১৪২ জন। এই বিপুল সংখ্য়ায় বেড কোন কোভিড হাসপাতালে পাওয়া যাবে, তা নিয়েও উদ্বিগ্ন এনআরএস কর্তৃপক্ষ।


পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এনআরএস মেডিকেড কলেজ ও হাসপাতালে ১৪২ জন করোনা আক্রান্ত৷ এদের মধ্যে রয়েছে রোগী, চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মী৷ সবার করেনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে৷ এনআরএস মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল সূত্রে খবর, রবিবার দিন করোনা সংক্রামিত হয়েছেন মোট ৬৬ জন। যার মধ্যে রয়েছেন ৬২ জন রোগী, একজন চিকিৎসক, নার্স, টেকনিশিয়ান এবং একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা। এরপর সোমবার রোগী এবং অন্যান্য আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪ জন। এরপর মঙ্গলবার ফের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪২ জন। তিন দিনে মোট আক্রান্ত ১৪২ জন৷


 
অপরদিকে, একদিনে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্য়ায় রেকর্ড গড়ল করোনা। পরিসংখ্য়ান বলছে, রাজ্য়ে এবার রেকর্ড গড়েছে মৃত্যুর সংখ্য়া। পশ্চিমবঙ্গের করোনা চিত্র বলছে,একদিনে রাজ্য়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২২৯১জন। যার মধ্যে কেবল কলকাতাতেই সংখ্যাটা ৭০০-র কাছাকাছি। পাশাপাশি শরীরে কোভিড পজিটিভ নিয়ে মারা গিয়েছেন ৩৯জন।  রাজ্য়ের বর্তমান করোনার পরিসংখ্য়ান অনুযায়ী, মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৪৯ হাজার ৩২১।  শরীরে করোনা নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ১২২১ জনের।অপরদিকে বৃহস্পতিবার অবধি  রাজ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৬১৫ জন। রাজ্যে মোট সুস্থ হলেন ২৯ হাজার ৬৫০ জন। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা অ্যাকটিভ রয়েছেন ১৮ হাজার ৪৫০ জন। রাজ্যে ডিসচার্ড রেট ৬০.১১ শতাংশ। আগে রাজ্য়ের সুস্থ হওয়ার সংখ্যা শতাংশের বিচারে যেখানে ৬২ শতাংশে পৌঁছেছিল সেটা এখন অনেকটাই কমে গিয়েছে।
 

 

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

   পূর্ব ভারতের প্রথম সরকারি প্লাজমা ব্যাঙ্ক-কলকাতা মেডিকেল, করোনা রুখতে প্রস্তুতি তুঙ্গে

  মৃত্যুর পর ২ দিন বাড়ির ফ্রিজে করোনা দেহ, অভিযোগ 'সাহায্য মেলেনি স্বাস্থ্য দফতর-পুরসভার'

  অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকলের পরও কোভিড জয়ী ৫৪-র দুধ ব্যবসায়ী, শহরকে দিলেন এক সমুদ্র আত্মবিশ্বাস

কোভিড রোগী ফেরালেই লাইসেন্স বাতিল, হাসপাতালগুলিকে হুঁশিয়ারি রাজ্য়ের