করোনা উদ্বেগের মধ্য়েই ফিরল স্বস্তি। করোনার প্রকোপ থেকে পেল মুক্তি পেল রাজ্যের উত্তর শহরতলি বেলগাছিয়া এলাকা। ওই এলাকায় নতুন করে আর কেউ কোভিডে আক্রান্ত হননি।  তাই বেলগাছিয়া বস্তি এবার ফিরল গ্রিন জোনে। এমনটাই জানিয়েছেন পুর প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম।

আরও পড়ুন, ভাড়া বাড়ানোর দাবি মানল না রাজ্য, বেসরকারি বাস-মিনিবাসের চালু হওয়ার আপাতত কোনও সম্ভাবনা নেই

সূত্রের খবর,  বেলগাছিয়া বস্তিতে করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি নিয়ে গত মাসে চিন্তায় পড়ে গিয়েছিল কলকাতা পৌরসভা। শহরে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছিল সেখান থেকেই। রোগ প্রতিরোধে ওই সব এলাকায় ঢোকা ও বেরোনো বন্ধ করতে স্থানীয় রাস্তাঘাট ও বাজার বন্ধ করে দেওয়া হয়।  এপ্রিলের শুরুতেই বেলগাছিয়া বস্তি সংলগ্ন এলাকায় পাঁচ জন করোনায় আক্রান্ত হন।  দুজনের মৃত্য়ুও হয়। পাশেই পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডে আক্রান্ত হন আরও তিন জন। তবে আপাতত সকলেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। গত ২৪ এপ্রিলের পর থেকে ওই এলাকায় নতুন করে কেউ সংক্রমিত হননি ।তাই বেলগাছিয়া বস্তি এবার গ্রিন জোনে  ফিরল। জানিয়েছেন পুর প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম।

আরও পড়ুন, বাংলাদেশে আটকে পড়া ১৬০ জন কলকাতায় ফিরছে সোমবার, বিমানবন্দর থেকেই পাঠানো হবে কোয়ারেন্টাইনে


অপরদিকে ওই এলাকার বরো কোঅর্ডিনেটর তরুণ সাহা জানিয়েছেন, করোনার জন্য যে বিধিনিষেধ মানতে হচ্ছে, তা আরও কিছু দিন বজায় রাখতে চান বেলগাছিয়া এলাকার বাসিন্দারাই। স্থানীয় মিষ্টির দোকান ও মুদিখানা খুলে রাখার সময় বাড়ানো হয়েছে। তবে সরকারি নির্দেশ মতো গ্রিন জোনের যে সব সুবিধা পাওয়ার কথা, তা মিলবে ধাপে ধাপে বলেই ধারণা তাঁদের। 

 

 

কোভিড হাসপাতালে স্বাভাবিক মৃত্য়ুতেও পরিবার চাইলে সৎকার করবে কলকাতা পৌরসভা, জানালেন ফিরহাদ

করোনা আক্রান্ত প্রাণ হারালেন এবার রাজ্যের এক আইনজীবী, এদিকে আইসোলেশনে তাঁর স্ত্রী

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের

 বেহালা হাসপাতালের প্রসুতির শরীরে মিলল এবার করোনার জীবাণু, কেপিসি-র ৩ রোগীর রিপোর্টও পজিটিভ

রোগী ফেলে পালাতে পারল না অ্যাম্বুল্যান্স, পিপিই পরা স্বাস্থ্য়কর্মীদেরকে তীব্র প্রতিবাদ নাকতলাবাসীর