লকডাউন সফলে  রাজ্য় পুলিশের ব্য়র্থতা তুলে একপ্রস্থ বলার পর এবার রেশন ব্যবস্থার দুর্নীতি নিয়ে সরব হলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। শনিবার ট্যুইট করে রেশনিং ব্যবস্থার দুর্নীতি নিয়ে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন, রেশন বিলি নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ আসায় ক্ষুব্ধ মমতা, সরানো হল খাদ্যসচিবকে


 ট্যুইট করে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় বলেন 'করোনা ভাইরাস-কে মোকাবিলা করতে মাঠে নামতে হবে। মিডিয়ার মাধ্যমে তা করা যাবে না। এখানে কোনও রাজনীতি না করাই বাঞ্ছনীয়। রেশনিং ব্যবস্থার দুর্নীতি নিয়ে চিন্তিত আছি। এই দুর্নীতি ক্রমশই বড় হয়ে যাচ্ছে। রেশনিং ব্যবস্থাকে কোনও রাজনৈতিক দলের দখল করা একটা অপরাধ। গরিবদের জন্য রেশন ব্যবস্থা ফ্রি করা হয়েছে। রেশন ব্যবস্থা নিয়ে কালোবাজারিদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত মুখ্যমন্ত্রীর।' 

 

 

 

 

আরও পড়ুন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্য়ু ক্যানসার রোগীর,আতঙ্ক ছড়াল রাজারহাটের হাসপাতালে

 

 সম্প্রতি রেশন বিলির অনিয়মের অভিযোগ আসায় খাদ্যসচিবকে ইতিমধ্যেই বদলি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। সূত্রের খবর,  কম্পালসারি ওয়েটিংয়ে পাঠানো হয় খাদ্য দফতরের প্রধান সচিব মনোজ অগ্রবালকে। শুক্রবার ডিএম, এসপি-দের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী, জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারদের এই রেশন বিলি তদারকি করার নির্দেশ দিয়েছেন। অপরদিকে, লকডাউন সফলের প্রসঙ্গ তুলে রাজ্য সরকারকে খোঁচা দিয়ে একাধিকবার ট্যুইট করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। রাজ্যে লকডাউন সফল করার জন্য ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় আধাসামরিক বাহিনী মোতায়েনের পক্ষে সওয়াল করেছিলেন রাজ্যপাল। শনিবার আরও এক ধাপ এগিয়ে কার্যত রেশনিং ব্যবস্থার দুর্নীতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে খোঁচা দিলেন রাজ্যপাল। 

 




মাকে শেষ দেখা হল না, জন্মদাত্রীর অন্তিমযাত্রায় কোয়রান্টিনে ছেলে

এনআরএসে যুবকের মৃত্য়ুর জের, করোনা আক্রান্ত হলেন এবার এক নার্স

  ঝড়-বৃষ্টিতে ফুটপাতে রাত কাটছে স্বস্ত্রীক স্বাস্থ্যকর্মীর, সংক্রমণের ভয়ে তাড়িয়ে দিল বাড়িওয়ালা