লকডাউন হালকা হতেই সামাজিক দূরত্ব শিকেয় তুলে দিয়ে যাত্রীদের ভিড় বাসস্ট্যান্ডে। কলকাতার গড়িয়াহাট থেকে কলকাতার বেশ কয়েকটি রুটে ছাড়ছে সরকারি বাস। সকালেই বাস ধরতে অনেক যাত্রী ভিড় জমিয়েছেন গড়িয়া সরকারি বাসস্ট্রান্ডে।

আরও পড়ুন, পুরোনো ছন্দে ফিরছে শহর, জানুন সোমবার থেকে চালু কী কী পরিষেবা

বাংলায় এখনও সংক্রমণের পরিমাণ কমেনি। এদিকে দীর্ঘ লকজাউনে অনেকেই রোজগার হারিয়েছে। এই কঠিন পরিস্থিতিতেই রাজ্যে সোমবার থেকেই চালু একাধিক পরিষেবা। তবে সরকারি বাস আগে থেকেই চালু ছিল। এবার তা রুটের দিক থেকেও বেড়েছে। উল্লেখ্য়, বাসে ঠিক যত আসন ততজনই চড়তে পারবেন। করোনা রুখতে রাজ্য সরকারের তরফে প্রথমে বলা হয়েছিল বাসে ২০ জনের বেশি যাত্রী একসঙ্গে তোলা যাবে না। মানতে হবে সামাজিক দূরত্ব। যাত্রীদের মুখে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। কনডাক্টরের হাতে থাকতে হবে গ্লাভসও। পরে অবশ্য নবান্ন জানায়, বিধিনিষেধ মেনেই বাসের আসন সংখ্যা যতজন, ততজন যাত্রীকেই তোলা যাবে। দাঁড়িয়ে কোনও যাত্রী যেতে পারবেন না। 

আরও পড়ুন, সোমবার থেকেই কলকাতা বিমানবন্দরে বাড়ছে উড়ানের সংখ্য়া, যাত্রী সুরক্ষায় আরও কড়াকড়ি


অপরদিকে, তাই বাসের সেই সিট সংখ্য়া ভর্তি হওয়ার আশঙ্কায় যাত্রী ঠাসা সোমবার  গড়িয়া সরকারি বাসস্ট্রান্ডে। বাসে ওঠার সময় লাইনে দাড়াতে গিয়ে অনেক যাত্রীই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখলেন না। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখলেও  তবে বেশিরভাগ যাত্রীই মুখে মাস্ক পরে বাসে উঠলেন। উল্লেখ্য়, মুখ্যমন্ত্রীর সতর্কবার্তা, লকডাউন ভঙ্গ করলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

 

আরও পড়ুন, কলকাতা মেডিক্যালের ছাদের কার্নিশে বসে করোনা রোগী, সামলাতে গিয়ে নাজেহাল কর্তৃপক্ষ

রাজ্য়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া ছাড়াল ৫০০০, একদিনে আক্রান্ত ৩১৭ 

 করোনা মোকাবিলায় বড়সড় উদ্য়োগ, পরিষেবা বাড়াতে ৫০০ ডাক্তার-নার্স নিচ্ছে রাজ্য

করোনা আক্রান্ত বেলেঘাটা থানার আধিকারিক সহ পরিবারের ৬ সদস্য, আইডিতে এখন চিকিৎসধীন

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসিস্ট্যান্ট

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের