শহর  কলকাতায় বেড়ে চলেছে নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবসা।  আর এবার সেই অবৈধ ও বেআইনির ব্যবসা চলার দুটি দোকানে হানা দিল কলকাতা পুলিশের এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ।মধ্য কলকাতার দুটি দোকান থেকে ১৪০০ লিটার ভেজাল স্যানিটাইজার আটক করা হয়েছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার এজরা স্ট্রিটে। 

আরও পড়ুন, কলকাতার বুকে ফের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, বিধ্বংসী আগুন ইউনিয়ন ব্য়াঙ্কের লকার রুমে

 ইবি সূত্রে জানা গিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার হানা দেওয়া হয় এজরা স্ট্রিটে। রামচন্দ্র অ্যান্ড সন্স (২, এজরা স্ট্রিট) ও বাসা পারফিউমেরি হাউজ (৮, এজরা স্ট্রিট) নামে দুটি দোকানে হানা দিয়ে উদ্ধার করা হয় ভেজাল স্যানিটাইজার। ওই দোকানের স্যানিটাইজার তৈরি বা বিক্রির কোনও লাইসেন্স ছিল না। আইপিসি ১২০ বি, ২৭০ , ৪২০ ধারা এবং বিপর্যয় মোকাবিলা আইনে ওই দোকানদুটির মালিকের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। সূত্রের খবর, দুটি দোকান থেকে প্রায় ১৪০০ লিটার হ্যান্ড স্যানিটাইজার বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। রাজীব পঞ্জাবি ও জিয়াউদ্দিন বাশা বলে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযুক্ত দুইজন কোনও কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। ওই দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতারের পর দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

আরও পড়ুন, নাসায় বাঙালি গবেষকের জয়, 'মঙ্গল মিশন'-র অন্যতম সদস্য কলকাতার চিরঞ্জিত

প্রসঙ্গত নকল স্যানিটাইজারের ব্যবসা গোটা দেশ থেকে অভিযোগ উঠছে। সম্প্রতি বেঙ্গালুরুতে বিপুল পরিমাণ ভুয়ো হ্যান্ড স্যানিটাইজার উদ্ধার করে পুলিশ। অপরদিকে, কলকাতায় অবশ্য শুধু স্যানিটাইজার নয়, এর আগে নকল এন ৯৫ মাস্ক বিক্রিরও অভিযোগ উঠেছিল। মার্চ মাসেই কলেজ স্ট্রিটের ওষুধের দোকানগুলিতে অভিযান চালিয়েছিলেন ইবি অফিসাররা। সস্তা মাস্কগুলিকেএন ৯৫ মাস্ক বলে চড়া দামে বিক্রি করা হচ্ছিল। এরপরেই হাতেনাতে ওই দোকানিকে ধরে ফেলেছিলেন তদন্তকারীরা। 
 

 

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

   পূর্ব ভারতের প্রথম সরকারি প্লাজমা ব্যাঙ্ক-কলকাতা মেডিকেল, করোনা রুখতে প্রস্তুতি তুঙ্গে

  মৃত্যুর পর ২ দিন বাড়ির ফ্রিজে করোনা দেহ, অভিযোগ 'সাহায্য মেলেনি স্বাস্থ্য দফতর-পুরসভার'

  অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকলের পরও কোভিড জয়ী ৫৪-র দুধ ব্যবসায়ী, শহরকে দিলেন এক সমুদ্র আত্মবিশ্বাস

কোভিড রোগী ফেরালেই লাইসেন্স বাতিল, হাসপাতালগুলিকে হুঁশিয়ারি রাজ্য়ের