আজকাল পুজো মানেই থিমের ঘনঘটা, যার মাঝখানে অনেক সময়েই হারিয়ে যায় মায়ের সনাতনী রূপটি। তাই মূলধারার থিমের বাইরে বেরিয়ে একেবারে অন্য ধারার পুজোয় মেতে উঠেছে রামকৃষ্ণপুরম রেসিডেন্টস ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন-এর দুর্গাপুজো। তাদের এবারের থিম 'তন্ত্রে নয়... মন্ত্রেই জাগাব তোমায়...'। এইবছর বরানগরের রামকৃষ্ণপুরম ৩০ তম বর্ষে পদার্পণ করল। এবছর তাঁদের থিমটিতে রয়েছে পুরোদস্তুর অভিনবত্বের ছোঁয়া। 

আরও পড়ুন- স্বস্তিক চিহ্নের সঙ্গে ছৌ-এর অপূর্ব মেলবন্ধন দেখতে আসতেই হবে জগাছা ইউথ কেয়ারের পুজোয়

আরও পড়ুন- দূষণের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে ব্লকপাড়া সর্বজনীন দুর্গোৎসবের এবারের থিম 'আনন্দলোকে আনন্দময়ী'

দেবী দুর্গার ১০৮টি নাম তা তো সকলেরই জানা। এই অষ্টতর শতনামেই দেবীর আরাধনা করা হয়ে থাকে। এই নামেই মন্ত্ররূপে জপ করে দেবীকে আহ্বান করা হয়ে থাকে। তাই এবার তাদের ভাবনা, 'মা'-এর ১০৮ নাম যা মন্ত্ররূপে পরিচিত এবং এর দ্বারাই তাঁরা মাকে জাগিয়ে তুলবেন। রামকৃষ্ণপুরমের দুর্গাপুজো কিন্তু থিমের স্রোতে গা ভাসায়নি। তাদের কথায়, ঝা-চকচকে থিমের যুগে সকলে মণ্ডপ সজ্জা দেখাতেই ব্যস্ত থাকেন, দর্শনার্থীরা যাতে ভিড় জমায়, তারা যাতে ছবি তোলে সবসময় তারই প্রতিযোগীতা চলে। কিন্তু রামকৃষ্ণপুরমের এবারের ভাবনা একেবারেই অন্যরকম, 'এখানে পুজোই মুল মন্ত্র'। 

আরও পড়ুন- পুজোতে গ্রামীণ জীবন শৈলীর নিদর্শন তুলছে ব্যান্ডেল অধিবাসীবৃন্দ

আরও পড়ুন- প্লাস্টিকের কবল থেকে পরিবেশকে বাঁচাতে অভিনব উদ্যোগ, হারিয়ে যাওয়া দিনের গল্প শোনাবে পুয়াবাগান সর্বজনীন

তাদের এবারের পুজো মণ্ডপে দেবী দুর্গার ১০৮টি নাম ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। দর্শনার্থীরা মায়ের অষ্টতর শতনাম জপ করে মায়ের মূল মন্ত্রে দীক্ষিত হবেন। তন্ত্রের অবসান ঘটিয়ে মন্ত্রের মাধ্যমেই দেবীর ১০৮ নাম উচ্চারিত হোক-এই তাদের প্রয়াস। মণ্ডপসজ্জায় ব্যবহার করা হয়েছে সম্পূর্ণ পরিবেশবান্ধব উপকরণ, যার মধ্যে রয়েছে কাঠ, প্লাইউড, সীসা বর্জিত রঙ, সুতো, কাপড় ইত্যাদি। তবে পুজো পরিচালনার পাশাপাশি সারা বছর ধরেই নানাকরম সমাজসেবামুলক কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকেন তারা। রক্তদান শিবির, স্বাস্থ্য শিবির, খেলাধুলা, বৃক্ষরোপণ ইত্যাদি নানা সমাজ সেবামুলক কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকেন তাঁরা।