করোনাভাইরাস থাবা বসাল কলকাতা আরও একটি চিকিৎসালয়ে। এবার করোনার কোপে কলকাতার  তেঘরিয়ার স্পন্দন নার্সিংহোম। সেখানে চিকিৎসধীন এক। করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে।  ইতিমধ্য়েই তাই সংক্রমণের আশঙ্কায় চিকিৎসক-সহ ১০ জন কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে। 

আরও পড়ুন, কলকাতায় কেন্দ্রীয় দলের সঙ্গে থাকা ৬ বিএসএফ করোনা আক্রান্ত, কোয়রান্টিনে আরও ৫০


সূত্রের খবর, কলকাতার  তেঘরিয়ার স্পন্দন নার্সিংহোমে সম্প্রতি এক রোগীর করোনা পজিটিভ ছিলেন। এরপরই করোনা আক্রান্ত ওই রোগীর মৃত্যু হয়। যার জেরে রবিবার অবধি বন্ধ করা হয়েছে এই নার্সিংহোম। সংক্রমণের আশঙ্কায় চিকিৎসক-সহ ১০ জনকে পাঠানো হয়েছে কোয়ারেন্টিনে। জীবাণুমুক্ত করার পরই ফের খোলা হবে ওই নার্সিংহোম।   

 আরও পড়ুন, ভোররাত থেকেই কলকাতায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি, প্রবল দুর্যোগ চলবে আগামী আরও ৭২ ঘণ্টা

 

উল্লেখ্য় ইতিমধ্য়েই করোনার কোপে বন্ধ হয়েছে রাজ্য়ের একাধিক সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতাল। বন্ধ  হয়েছে-পিয়ারলেস হাসপাতাল, চার্ণক হাসপাতাল, শিশু হাসপাতাল,কলকাতা মেডিক্য়ালের ইডেন বিল্ডিং-প্রসুতি বিভাগ। পাশাপাশি নতুন করে রোগী ভর্তি বন্ধ করা হয়েছে- ঠাকুরপুকুর ক্য়ান্সার হাসপাতাল, এনআরএস মেল মেডিসিন ওয়ার্ড। তবে পাশাপাশি বন্ধ হয়ে ফের খুলেছে- হাওড়া জেলা হাসপাতাল।

 

 

কেন্দ্র বলছে ১৩৩, রাজ্য়ের হিসেবে করোনায় মৃত ৬৮

শুধু কলকাতাতেই করোনা আক্রান্ত ৭০০, মহানগরকে ঘিরে ঘুম ছুটছে রাজ্য়বাসীর

করোনা উপসর্গ সহ মিজোরামের বাসিন্দার মৃত্য়ু হল কলকাতায়, ক্যানসারের জন্য় তিনি ছিলেন চিকিৎসাধীন

রাজ্যে করোনায় মৃত্যুর হারে দেশের শীর্ষে পশ্চিমবঙ্গ, বলছে কেন্দ্রের টিম

রোগী ফেলে পালাতে পারল না অ্যাম্বুল্যান্স, পিপিই পরা স্বাস্থ্য়কর্মীদেরকে তীব্র প্রতিবাদ নাকতলাবাসীর