Asianet News Bangla

ফুলবাগান কাণ্ডে নয়া মোড়, খুনের আগে রিভলবার নিয়ে রীতিমত পড়াশোনা করেন অমিত

  •  ফুলবাগান কাণ্ডের তদন্তে উঠে এল হাড় হিম করা নতুন তথ্য  
  • ফুলবাগানের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার  অমিতের ৬৭ পাতার সুইসাইড নোট  
  • স্কুলজীবন থেকে দাম্পত্যের টানাপোড়েন, সবই লেখা রয়েছে সেই নোটে 
  • খুনের আগে রিভলবার নিয়ে ভালমতই পড়াশোনা করেন অমিত আগরওয়াল 
Phoolbagan case update from where amit collect the gun RT
Author
Kolkata, First Published Jun 24, 2020, 11:15 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp


ফুলবাগান কাণ্ডের তদন্তে সামনে এসেছে একের পর এক হাড় হিম করা নতুন তথ্য। তদন্তে জানা গিয়েছে, বেঙ্গল কেমিক্যালের কাছাকাছি কোনও এলাকা থেকেই আগ্নেয়াস্ত্র নিয়েছিলেন অমিত। সেখানেই অস্ত্রসরবরাহকারীর খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ। এদিকে, ফুলবাগানের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে অমিতের ৬৭ পাতার সুইসাইড নোট।

আরও পড়ুন, উত্তরবঙ্গে অতিভারী বৃষ্টির সর্তকতা জারি, বুধবার ফের ভিজবে কলকাতাও


পুলিশি সূত্রে খবর, ফুলবাগানের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে অমিতের ৬৭ পাতার সুইসাইড নোট। স্কুলজীবন থেকে দাম্পত্যের টানাপোড়েন, সবই লেখা রয়েছে সেই নোটে।  প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে, ক্যাবে করেই শ্বশুরবাড়ির উদ্দেশে রওনা হয় সে। তবে পৌঁছনর আগের ৪ মিনিট আগেই রাস্তায় নেমে পড়ে সে। অনুমান এই ৪ মিনিট হেঁটে যাওয়ার সময়েই আগ্নেয়াস্ত্র সংগ্রহ করেছেন অমিত।  পুলিশি সূত্রে খবর, খুনের আগে রিভলবার নিয়ে রীতিমতো পড়াশোনা করেন অমিত আগরওয়াল।  লোডেড রিভলবার ব্যবহারের তথ্যও মিলেছে অমিতের ল্যাপটপে। দমদম বিমানবন্দর থেকে নেমে নিজের ছেলেকে ভাইয়ের বাড়িতে ড্রপ করে একটি ক্যাব নিয়ে অমিত কাঁকুরগাছির এই বাড়িতে আসে। শাশুড়ির পর শ্বশুরকে খুন করার পরিকল্পনা ছিল জামাইয়ের। প্রায় পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে শাশুড়েকে খুন করে অমিত। সেটি কপালে লাগে। শাশুড়ির মৃত্যু হয়। এরপরই আত্মহত্যা করেন অমিত বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

আরও দেখুন, 'মিথ্যে কথা বলছে চিন, আগে দিক স্যাটেলাইট ইমেজের প্রমাণ


প্রসঙ্গত, সোমবার সন্ধ্যায় ফুলবাগানের রামকৃষ্ণ সমাধি রোডে যান অমিত আগরওয়াল। বছর বিয়াল্লিশের অমিত পেশায় চাটার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট। রামকৃষ্ণ সমাধি রোডে রামেশ্বরম অ্যাপার্টমেন্টের বি-টাওয়ারের তেতলায় অমিতের শ্বশুর সুভাষ ধান্দানিয়ার অ্যাপার্টমেন্ট। ওই টাওয়ারের বাকি বাসিন্দাদের দাবি, অমিত ভিতরে যাওয়ার পর থেকেই প্রবল চিৎকার ভেসে আসছিল। অমিত রীতিমতো চিৎকার করে শ্বশুর সুভাষ ও শাশুড়ি ললিতার সঙ্গে ঝগড়া করছিলেন। আচমকাই  এরপর সুভাষ ধান্দানিয়ার ফ্ল্যাটে গুলির আওয়াজ পাওয়া যায়। রাত ৮ নাগাদ পুলিশ রামেশ্বরম অ্যাপার্টমেন্টে পৌঁছয়।  দেখা যায় মেঝেতে পড়ে রয়েছে বছর বাষট্টির ললিতা ধান্দানিয়ার নিথর দেহ।  বিছানার উপরে মেলে বছর বিয়াল্লিশের অমিতের নিথর শরীর।  পুলিশি তদন্তে উঠে আসে সোমবার শহরে ফিরেই খুন করে অমিত। বিকেলের দেড় ঘণ্টা অমিতের গতিবিধি ধরা পড়েছে পুলিসের স্ক্যানারে। তবে এই মাঝের ৪ মিনিট এখনও অধরা। আগ্নেয়াস্ত্র সরবরাহকারীর খোঁজ করছে পুলিস। এই ৪ মিনিট ঠিক কী হয়েছিল জানতে গভীরভাবে খতিয়ে দেখছে তদন্তকারীরা।

 

 কলকাতায় একদিনে চিহ্নিত প্রায় ২০০ বাড়ি, কনটেইনমেন্ট জোন বৃদ্ধির কারণ বললেন মুখ্যসচিব

 করোনা আক্রান্ত বেলুড়ের এক মহারাজ, মঠ খোলার দিন আপাতত অনিশ্চিত

করোনায় সুরক্ষাবিধি নিয়ে বিক্ষোভের জের, বদলি ১৩ পুলিশকর্মীর

করোনা আক্রান্ত নিজাম প্যালেসের এক সিবিআই আধিকারিক, স্যানিটাইজ করা হল পুরো অফিস

করোনা আবহে সুরজিৎ কর পুরকায়স্থের প্রাক্তন স্ত্রী-শাশুড়ির দেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসি

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios