সারমেয়কে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। নজিরবিহীন এই ঘটনাটি ঘটেছে দমদমের বেদিয়াপাড়া এলাকায়। পোষ্য়ের মালিকের অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

৭ মাসে কী দেখেছেন, রাজ্য়ের আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতি অমিত শাহকে জানাবেন রাজ্য়পাল
 
বেদিয়া পাড়ার ওই বাসিন্দা জানান, পোষ্য়ের চিৎকার শুনে ঘরে ঢুকে হতবাক হয়ে যান তিনি। কুকুরের সঙ্গে মানুষের এই দৃশ্য় অবাক করে দেয় তাঁকে। এরপরই ভাড়াটে অভিযুক্তের নামে থানায় অভিযোগ জানান তিনি। খবর দেওয়া হয় পশুপ্রেমী সংগঠনগুলিকেও। কুকুর ছানাকে ধর্ষণের খবর শুনে প্রথমে বিশ্বাস করতে পারেননি অনেকেই। পরে পুলিশ এসে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করলে ঘটনার বাস্তবতা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল হয় এলাকাবাসী। 

দোল এলেই কন্ডোম-পিলের চাহিদা তুঙ্গে, কী বলছেন শহরের বিক্রেতারা

মূলত,পশুপ্রেমী সংগঠনের উদ্য়োগেই অভিযুক্তের নামে দমদম থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। জানা  গিয়েছে, প্রথমে বিষয়টি আমল দেয়নি  থানাও। পরে পশুপ্রেমী সংগঠনের মাধ্যমে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মানেকা গান্ধীকে ঘটনাটি জানানো হয়। বেগতিক দেখে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য় হয় পুলিশ। 

করোনা ভাইরাস রুখতে মোদী মাস্ক, কলকাতায় বিলি শুরু বিজেপির

পরে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্তকে। ধৃতের বিরুদ্ধে ৩৭৭ ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। বারাকপুর আদালতে তোলা হলে পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। তবে ওই ব্যক্তি মানসিকভাবে সুস্থ কিনা  তা নিয়ে  প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। তবে ভাড়াটিয়ার সঙ্গে কোনও বিবাদের কথাও ফেলছে না পুলিশ। ইতিমধ্য়েই ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।