করোনা আবহের মধ্যে এবছরের গঙ্গাসাগর মেলা। কোভিড সুরক্ষা মেনে এবছর গঙ্গাসাগর দর্শন কীভাবে হবে। তার জন্য ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে রাজ্য সরকার। গঙ্গাসাগর মেলার জন্য সংশ্লিষ্ট জেলার জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারদের সঙ্গে বৈঠক করেছে রাজ্য সরকার। পাশাপাশি, দর্শনার্থীদের জন্য বিমার ব্যবস্থা করেছে রাজ্য।

আরও পড়ুন-'মুখ্যমন্ত্রী আমাকে তাড়াননি, আমিও ছাড়িনি', দলত্যাগের জল্পনায় জল ঢাললেন শুভেন্দু
 

বাড়িতে বসেই গঙ্গাসাগর দর্শন

গঙ্গাসাগরে না গিয়েই দর্শন করা যাবে গঙ্গাসাগর মেলা। করোনা ভাইরাসের এই আবহের মধ্যে যারা বাড়িতে বসেই গঙ্গাসাগর মেলা উপভোগ করতে চান তাদের জন্য এই বিশেষ সুবিধা নিয়ে এলো রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার নবান্নে এ বিষয়ে আলোচনার জন্য বৈঠকে বসেছিলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্য পুলিশ প্রশাসনের অন্যান্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা। বৈঠকে ছিলেন বিভিন্ন দপ্তরের সচিবরা। বৈঠকে প্রাথমিক পর্বে আলোচনা হয়েছে বিশেষ মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে গঙ্গাসাগর মেলা লাইভ দর্শন করানো হবে। কেবল তাই নয় এই মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে ই - স্নান করার ব্যবস্থাও রাখা হচ্ছে। 

আরও পড়ুন-মালদহে বিস্ফোরণে ক্ষতিপূরণ ঘোষণা মমতার, মৃতদের পরিবারকে ২ লক্ষ আর্থিক সাহায্য রাজ্যের

করোনা সুরক্ষায় বিশেষ ব্যবস্থা

দর্শনার্থীদের করোনা সুরক্ষায় হাওড়া ও শিয়ালদহ স্টেশনে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে। গঙ্গাসাগর থেকে কোনও ভাবেই করোনা সংক্রমণ না হয় সে বিষয়টি মাথায় রেখে বিশেষ ব্যবস্থা নিতে চলেছে রাজ্য। মেলার প্রবেশ পথে ও স্নানের সময় দর্শনার্থীদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিশেষ জোর দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও, গঙ্গাসাগর মেলা চত্বরে মেডিক্য়াল ক্য়াম্প, কোভিড কন্ট্রোল রুম, মাস্ক ও স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করা হবে। আবার, মেলা চত্বরে অ্য়াম্বুল্য়ান্সের ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়াও, দর্শনার্থীদের জন্য ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিমার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন-'বহিরাগতরা এসে দাপাদাপি করছে বাংলায়', বিজেপির কেন্দ্রীয় দলকে কটাক্ষ ফিরহাদের

গঙ্গাসাগর মেলায় আঁটোসাঁটো নিরাপত্তা

গঙ্গাসাগর মেলায় নিরাপত্তা সংক্রান্ত কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তা নিয়ে বৈঠক করেছেন প্রশানের আধিকারিকরা। দর্শনার্থীদের যাতায়ের সুবিধার্থে কলকাতা পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট জেলা পুলিশের পুলিশ সুপারদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়েছে। গঙ্গাসাগল মেলায় নজরদারি চালাতে ড্রোনের ব্যবস্থা। মেলায় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হবে। এছাড়াও, মোতায়েন থাকবে বিপর্যয় মোকাবিলা দল। সিসিটিভির ব্যবস্থা রয়েছে। আবার ভিড় নিয়ন্ত্রণেও বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে প্রশাসনের তরফে।