Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Blue Aadhar Card: শুধু সাদা নয় আধারকার্ড হয়ে ও নীল রঙের ও জানুন কীভাবে কাদের জন্য পাওয়া যাবে এই কার্ড

শুরু থেকে যে আধার কার্ডটি ব্যবহৃত হয়ে আসছে সেটির রং সাদা। কিন্তু আধার কার্ডেও আছে রঙের বৈচিত্র। আধারকার্ড হয় নীল রঙের ও। কীভাবে পাওয়া যাবে এই নীল আধার কার্ড?
 

know what is bal aadhar card and how to apply to get this card in details
Author
Kolkata, First Published Oct 7, 2021, 4:30 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আধারকার্ড (Aadhar Crad) বর্তমানকালে জীবনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। ব্যাঙ্কে হোক বা অন্য কোনো বিশেষ ক্ষেত্র নিজের পরিচয় পত্র, ঠিকানার পরিচয়পত্র থাকাটা এখন বাধ্যতামূলক। এক্ষেত্রে আধারকার্ড হল এমন একটি একটি নথি যা যে কোনো জায়গায় অ্যাড্রেস প্রুফের (Address Proof) কাজ করে। প্রত্যেকটি মানুষের আধার কার্ড থাকাটাও এখন বাধ্যতামূলক। তবে এতদিন সবাই দেখে এসেছেন সাদা রঙের আধার কার্ড কিন্তু নীল রঙের ও যে  আধার কার্ড হয় তা অনেকেরই অজানা। 

আরও পড়ুন- Sikkim: সিকিমে নিষিদ্ধ করা হল প্লাস্টিকের জলের বোতল পর্যটকদের উদ্দেশ্যে বিরাট বার্তা রাজ্য সরকারের

সাধারণত বড়দের জন্য যে আধার কার্ডটি ব্যবহৃত হয় সেটির রং সাদা (White) কিন্তু ৫ বছরের নীচের শিশুদের জন্য যে কার্ডটি ব্যবহৃত হয় সেটির রং নীল9Blue) । এই কার্ডটিকে বলা হয় বাল আধার কার্ড (Bal Aadhar Card)। ২০১৮ সাল থেকে এই কার্ডটির ব্যবহার শুরু হয়েছে। 

  • কারা এই নীল আধার কার্ড  আবেদন করতে পারেন?

* সদ্য যারা মা-বাবা (Parents) হয়েছেন তারা এই কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারেন।

* বাচ্চার বয়স যদি পাঁচ বছরের মধ্যে হয় তাহলে এই কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারেন। 

* বাচ্চার বয়স পাঁচ বছরের বেশি হলেই এই আধার কার্ডের (Aadhar Card) কার্যকারিতা শেষ হয়ে যাবে এবং সাধারণ আধার কার্ডের জন্য আবেদন করতে হবে।

  • নীল আধার কার্ডের জন্য কীভাবে আবেদন করতে হবে?

১. প্রথমেই এনরোলমেন্ট সেন্টারে (Enrollment Centre) যেতে গিয়ে এনরোলমেন্ট ফর্ম (Enrollment Form) পূরণ করতে হবে

২. বাচ্চার বার্থ সার্টিফিকেট (Birth Certificate) ও বাবা- মায়ের আধার কার্ড নম্বর দিতে হবে সঙ্গে মোবাইল নম্বর (Mobile Number) দিতে হবে। 

৩. বাচ্চার একটি ছবি তোলা হবে। 

৪. বাচ্চার আধার কার্ড নম্বর তার বাবা- মায়ের কার্ড নম্বরের সঙ্গে লিঙ্ক করে দেওয়া হবে। 

৫. কাজ হয়ে যাওয়ার পর একটি অ্যাকনলেজমেন্ট স্লিপ (Acknowledgement Slip) নিতে হবে।

৬. রেজিস্ট্রেশন ও ভেরিভিকেশন প্রসেস শেষ হয়ে গেলে একটি মেসেজ আসবে। সব ঠিক থাকলে এই প্রক্রিয়া ৬০ দিন পর বাল আধার হাতে পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন- OnePlus 9 5G: এই দীপাবলিতে OnePlus 9 সিরিজে বাম্পার অফার জানুন কত দাম রাখা হল এই ফোনের

  • সাদা আধার কার্ড ও নীল আধার কার্ডের মধ্যে পার্থক্য?

* সাদা আধার কার্ডের ক্ষেত্রে কার্ডে বায়োমেট্রিক (Biometric) বা আইরিশ স্ক্যানের তথ্য থাকে কিন্তু এক্ষেত্রে তা থাকে না।
* বাল আধার কার্ডের জন্য আবেদন করতে শুধুমাত্র বার্থ সার্টিফিকেট (Birth Certificate), বাবা মায়ের যে কারও আধার কার্ড লাগে।

উল্লেখ্য, বাল আধার কার্ডের মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে বায়োমেট্রিক করিয়ে নিতে হবে। যার জন্য অনলাইনে আবেদন করা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে, UIDAI-র অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে যেখানে লিঙ্ক পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন- Rave Party: মাত্র কয়েক ঘন্টার মধ্যে জনপ্রিয় 'রেভ পার্টি' জানুন আদতে কী এই পার্টি

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios