চুল লম্বা করতে চাইছেন, রইল কার্যকরী কিছু ঘরোয়া উপায়

| Oct 02 2022, 07:44 PM IST

চুল লম্বা করতে চাইছেন, রইল কার্যকরী কিছু ঘরোয়া উপায়

সংক্ষিপ্ত

চুল ভেঙ্গে যাওয়া, পড়ে যাওয়া, শুষ্কতা এবং তাড়াতাড়ি পাকা হয়ে যাওয়া স্বাভাবিক। নারী-পুরুষ সবারই এই সমস্যা। আমরা সকলেই চাই আমাদের চুলের স্বাস্থ্যও লম্বা হোক। এখানে আপনি চুলের যত্নের কিছু টিপস দেখতে পারেন, যার সাহায্যে চুলের বৃদ্ধি ভালো হবে।

চুল লম্বা রাখতে সবাই চায়। কিন্তু আজকাল কেমিক্যাল সমৃদ্ধ পণ্য, দূষণ ও মানসিক চাপের কারণে চুলের অনেক ক্ষতি হচ্ছে। চুল ভেঙ্গে যাওয়া, পড়ে যাওয়া, শুষ্কতা এবং তাড়াতাড়ি পাকা হয়ে যাওয়া স্বাভাবিক। নারী-পুরুষ সবারই এই সমস্যা। আমরা সকলেই চাই আমাদের চুলের স্বাস্থ্যও লম্বা হোক। এখানে আপনি চুলের যত্নের কিছু টিপস দেখতে পারেন, যার সাহায্যে চুলের বৃদ্ধি ভালো হবে।

চুল কম গজানোর অনেক কারণ রয়েছে। এখানে সম্ভাব্য কারণগুলির একটি তালিকা রয়েছে:

Subscribe to get breaking news alerts

হরমোনের পরিবর্তন।
খাবারে পুষ্টির অভাব।
অতিরিক্ত মানসিক চাপ নেওয়া
কেমিক্যালযুক্ত শ্যাম্পু এবং চুলের যত্নের পণ্য ব্যবহার করা।
কিছু ওষুধ চুলের বৃদ্ধিকেও প্রভাবিত করে।
পর্যাপ্ত ঘুম না হওয়া 
জেনেটিক কারণে চুল পড়া

দ্রুত চুল বাড়ার টিপস

১. নিয়মিত তেল মালিশ করুন
চুলের বৃদ্ধির জন্য একটি স্বাস্থ্যকর মাথার ত্বক অপরিহার্য। আপনার মাথার ত্বক যখন সুস্থ থাকবে, তখন আপনার চুলও ভালোভাবে গজাতে সক্ষম হবে। মাথার ত্বক সুস্থ রাখতে প্রতিদিন চুলে তেল লাগিয়ে হালকা হাতে ম্যাসাজ করতে হবে। প্রতিদিন তেল মালিশ করলে রক্তের প্রবাহ বৃদ্ধি পায়, চাপ কমায়, মাথার ত্বকে পুষ্টি যোগায় এবং চুলের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। ম্যাসাজের জন্য সরিষার তেল, বাদাম তেল, খোসার তেল এবং অলিভ অয়েল নিতে পারেন। সপ্তাহে দুবার ম্যাসাজ করা উচিত। এছাড়াও, আপনি সেলুনে করা ওমেগা 6, ওমেগা 7, অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলির একটি মাথা ম্যাসাজও পেতে পারেন।

২. ভাল ঘুম
ঘুম আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, শরীরের পাশাপাশি আমাদের চুলের জন্যও পর্যাপ্ত ঘুম হওয়া উচিত। একজন সুস্থ মানুষের জন্য ৬ ঘণ্টা ঘুম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই সময়, আপনার শরীর follicles এবং অন্যান্য টিস্যু মেরামত করে, যা চুল বৃদ্ধির দিকে পরিচালিত করে।

৩. চুল শ্যাম্পু করুন
ধুলো মাটির কারণে চুলের বৃদ্ধি বন্ধ হয়ে যায় এবং মাথার ত্বক নোংরা হয়ে যায়। তাই আপনার মাথার ত্বক পরিষ্কার রাখতে চুলে শ্যাম্পু করা উচিত। চুলের গঠন অনুযায়ী শ্যাম্পু বেছে নিন। শ্যাম্পু করার সময় আপনার মাথার ত্বকে ম্যাসাজ করুন, এটি রক্ত সঞ্চালন বাড়ায় এবং অক্সিজেন আপনার চুলের গোড়ায় ভালভাবে যায়। খেয়াল রাখবেন চুলে যেন খুব দ্রুত ম্যাসাজ না হয়। শ্যাম্পু সবসময় সপ্তাহে মাত্র দুবার করা উচিত।

৪. একটি স্বাস্থ্যকর এবং সঠিক খাদ্য খান
আমাদের চুল প্রোটিন দিয়ে তৈরি, তাই চুলের সুস্বাস্থ্যের জন্য আমাদের খাদ্যে বেশি বেশি প্রোটিন অন্তর্ভুক্ত করা উচিত। ভিটামিন এ, বি, ই এবং ওমেগা 3 ফ্যাটি অ্যাসিড খাবারে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত। মাছ, ডিম, বাদাম, শণের বীজ এবং দুগ্ধজাত খাবার চুলের জন্য উপকারী।

৫. স্প্লিট এল্ড ছাঁটা 
প্রাণহীন চুল ছাঁটাই প্রয়োজন। স্প্লিট এন্ডের কারণে চুল ভেঙ্গে যায়। সেজন্য সময়ে সময়ে তাদের কাটা প্রয়োজন। আপনার চুলের সঠিক বৃদ্ধির জন্য আপনাকে অবশ্যই দুই থেকে তিন মাসের মধ্যে ছাঁটাই করতে হবে।

৬. চুল আঁচড়া দিয়ে ঘুমান
ঘুমানোর আগে চুল আঁচড়ানো এবং চুল আঁচড়ানোর ফলে শিকড়ে রক্ত ​​চলাচল সঠিকভাবে বৃদ্ধি পায়, যা চুলের বৃদ্ধিও বাড়ায়। চুলের জন্য একটি চওড়া দাঁতযুক্ত কাঠের চিরুনি ব্যবহার করুন।

৭. যোগব্যায়াম এবং ব্যায়াম করুন
আপনার দৈনন্দিন রুটিনে ব্যায়াম, যোগব্যায়াম এবং ধ্যান অন্তর্ভুক্ত করুন। এতে আপনার রক্ত সঞ্চালনও উন্নত হবে এবং অক্সিজেন আপনার চুলে ভালোভাবে পৌঁছাতে সক্ষম হবে। নিয়মিত ব্যায়াম মানসিক চাপ কমায় এবং চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে।

আরও পড়ুন- প্যান্ডেল হপিং করতে দিয়ে ত্বকে দেখা দিচ্ছে কালো প্যাচ? সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে ঘরোয়া উপায়

আরও পড়ুন- ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে ভুলেও খাবেন না এই খাবারগুলি, অজান্তেই বিপদ ডেকে আনবেন নিজের

আরও পড়ুন- এই খাবারগুলো খাওয়ার পরে কখনই জল খাবেন না, হতে পারে শরীরের বড় ক্ষতি