জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পর থেকে এযাবৎ দুদেশের মধ্যেকার সম্পর্ক নিয়ে অনেক চাপানউতোর হয়েছে। জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে ভারতের এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধীতা করেছিল পাকিস্তান, শুধু তাই নয়, এর জেরে ভারতের সঙ্গে একাধিক কূটনৈতিক সম্পর্কও ছিন্ন করেছে পাকিস্তান। আর সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি তা হল সীমান্তে পাকিস্তানের যুদ্ধবিরোতি লঙ্ঘন।

সম্প্রতি কেন্দ্রের তরফে প্রকাশিত তথ্যে উঠে এসেছে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। ৩৭০ ধারা বাতিলের ঘোষণার পর থেকে এযাবত ২২২ বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তান। সম্প্রতি কেন্দ্রের তরফে প্রকাশ করা হয়েছে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য যেখানে দেখা গিয়েছে, চলতি বছরে প্রায় ১৯০০ বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তানি সেনা। আর ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পর থেকে গত ২৫ দিনের মধ্যে ২২২-এরও বেশি বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তান। 

আরও পড়ুন- এই মুহূর্তে দেশের সেরা দশ খবর, যাতে আপনাকে রাখতেই হবে চোখ

আরও পড়ুন -মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে আত্মঘাতী পুলিশকর্মী, মৃত্যু ঘিরে ঘনাচ্ছে রহস্য

আরও পড়ুন- এইচআইভি আক্রান্ত হওয়ার খবরে প্রাণ গেল এক মহিলার, তদন্তে উঠে এল রিপোর্ট ভুয়ো

আরও পড়ুন- স্ত্রীর নাম থাকবে কি এনআরসি তালিকায়, আতঙ্কে আত্মঘাতী স্বামী

বিষয়টি স্পষ্ট করে দেখিয়ে দিল যে, কাশ্মীর ইস্যুটিকে আন্তর্জাতিকীকরণের জন্য কী মরিয়া চেষ্টাই চালাচ্ছে পাকিস্তানি সেনা। বারংবারই পাকিস্তানের তরফে ভারী গোলা বর্ষণের মতো ঘটনা ঘটানোর পরেও ভারতীয় সেনার তরফে প্রতিবেশী সেনাদের রুখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও কিন্তু গ্রহণ করেছে ভারতীয় সেনা। প্রসঙ্গত জুলাই মাসেই ২৯৬ বার পাকিস্তানের তরফে যুদ্ধবিরোতি লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটেছে। প্রসঙ্গত গবেষণা ও বিশ্লেষণ শাখার একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে পাকিস্তান ভিত্তিক সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠী জইশ-ই-মহম্মদ-এর তরফে জম্মু ও কাশ্মীরের নিরাপত্তা বাহিনীকে টার্গেট করে ভারত সীমান্তে অনুপ্রবেশের মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে।