সন্দীপ মজুমদার, উলুবেড়িয়া:  কোভিড হাসপাতাল হিসাবে চিহ্নিত হবার পর  হাওড়ার সঞ্জীবন হাসপাতালে এই নিয়ে তৃতীয়বার সফল সিজারিয়ান বেবির জন্ম হল। বছর চব্বিশের এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধু  শনিবার  হাওড়ার সঞ্জীবন হাসপাতালে ভর্তি হন। এবং সম্পূর্ণ সুস্থ একটা পুত্র সন্তানের জন্ম দেন তিনি। 

আরও পড়ুন, বাংলাদেশে আটকে পড়া ১৬০ জন কলকাতায় ফিরছে সোমবার, বিমানবন্দর থেকেই পাঠানো হবে কোয়ারেন্টাইনে


হাওড়ার সঞ্জীবন হাসপাতালে চিকিৎসক শুভাসিস মিত্র জানিয়েছেন, 'বছর চব্বিশের এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধু  ১৭ মে রবিবার দুপুর সাড়ে বারোটায় হাওড়ার সঞ্জীবন হাসপাতালে ভর্তি হন।  সম্পূর্ণ সুস্থ একটা পুত্র সন্তানের জন্ম দেন তিনি। কোভিড হাসপাতাল হিসেবে চিহ্নিত হবার পর এই নিয়ে আমরা তৃতীয়বার সিজারিয়ান বেবির জন্ম দিতে সফল হলাম। এই যারা এই কর্মকাণ্ডে যুক্ত ছিলেন , তারা হলেন চিকিৎসক পার্থ ভট্টাচার্য, চিকিৎসক অখিলেশ চৌধুরি, চিকিৎসক ডালিয়া মিত্র, চিকিৎসক উর্মিলা পিল্লাই রায়। এই সকল চিকিৎসককে নিয়েই  আমরা গর্বিত।'

আরও পড়ুন, আগামী ১২ ঘন্টায় আরও শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে 'আমফান', রাজ্য়ে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

উল্লেখ্য়, এর আগে করোনায় আক্রান্ত এক শিবপুরের এক মহিলাও সুস্থ সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন হাওড়ার এই  সঞ্জীবন হাসপাতালেই। পাশপাশি তারও আগে ১৩ এপ্রিল করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে এক প্রসূতির। তাঁকেও ভর্তি করা হয় ফুলেশ্বরের সঞ্জীবন কোভিড হাসপাতালে।  দিন সাতেক বাদে সুস্থ সন্তানের জন্ম দেন ওই মহিলা। তারপরেও অবশ্য সদ্যোজাত সন্তানকে নিয়ে হাসপাতালেই ছিলেন তিনি। ফের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা দু'জনেরই। রিপোর্ট নেগেটিভ আসায়, ১ মে তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়। আর এবার এই তৃতীয়বার সাফল্য় পেল হাওড়ার এই কোভিড হাসপাতাল। 

 

 

কোভিড হাসপাতালে স্বাভাবিক মৃত্য়ুতেও পরিবার চাইলে সৎকার করবে কলকাতা পৌরসভা, জানালেন ফিরহাদ

করোনা আক্রান্ত প্রাণ হারালেন এবার রাজ্যের এক আইনজীবী, এদিকে আইসোলেশনে তাঁর স্ত্রী

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের

 বেহালা হাসপাতালের প্রসুতির শরীরে মিলল এবার করোনার জীবাণু, কেপিসি-র ৩ রোগীর রিপোর্টও পজিটিভ

রোগী ফেলে পালাতে পারল না অ্যাম্বুল্যান্স, পিপিই পরা স্বাস্থ্য়কর্মীদেরকে তীব্র প্রতিবাদ নাকতলাবাসীর