এবার আর রাখঢাক নয়। একেবারে দেবশ্রীকে নিয়ে সরাসরি সংঘাতে গেলেন নব্য বিজেপি নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়। তৃণমূলের রায়দিঘির বিধায়ক পলিটিক্যাল টুরিজম করছেন বলে মন্তব্য করলেন মমতার এক সময়ের ছায়াসঙ্গী।

১৪ অগাস্টের পর এই প্রথম বার। অবশেষে দেবশ্রী নিয়ে নীরবতা ভাঙলেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। বুধবার রাতে দেবশ্রীর দিলীপ ঘোষের বাড়ি যাওয়া নিয়ে প্রতিক্রিয়া দেন শোভন। তিনি বলেন,অতীতে দেবশ্রীকে নিয়ে আপত্তির কথা দিল্লিতেই দলকে জানিয়ে দিয়েছি। দিলীপ ঘোষের বাড়িতে দেবশ্রী কেন গিয়েছিলেন, সেটা উনিই বলতে পারবেন। তবে কেউ যদি পলিটিক্যাল টুরিজম করে সেটা নিজের ইচ্ছেতেই করছে। কেন ঘুরে বেড়াচ্ছেন সেটা তিনিই ভালো বলতে পারবেন।

আরও পড়ুন :দিলীপের বাড়িতে দেবশ্রী! যোগদান ঘিরে জল্পনা

আরও পড়ুন :নারদা নয়, সারদা নিয়ে আট ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ মুকুলকে

রাজ্য রাজনীতির সাম্প্রতিক চিত্র বলছে,বিজেপিতে যোগ দিলেও এখনও সক্রিয় রাজনীতিতে নামেননি শোভন চট্টোপাধ্যায়। এমনকী কদিন আগেই বিজেপির একটি মিটিংয়ে ডাকা হলেও যাননি তিনি। বিজেপির একটি সূত্র বলছে, দলে দেবশ্রীর যোগদান নিয়ে টানাপোড়েন ছাড়াও দিলীপ ঘোষের ডাল-ভাত মন্তব্য কানে বেঁধেছে শোভনের। পাশাপাশি বিজেপি অফিসের সংবর্ধনা অনষ্ঠানে আমন্ত্রিতের তালিকায় বৈশাখীর নাম না দেখে অসম্মানিত বোধ করেন তিনি। ঘনিষ্ঠ মহলে এক সময় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আসবেন না বলেই বলে ফেলেছিলেন। যদিও শেষমেশ মূরলীধর স্ট্রিটের সংবর্ধনায় হাজির হন শোভন-বৈশাখী। এরপর থেকেই রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে সম্পর্কে চিড় ধরে তাঁদের।
বিষয়টি ভালো উপলব্ধি করেছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। সেকারণে শোভনের মান ভাঙাতে ইতিমধ্যেই তাঁর বাড়িতে গিয়েছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা অরবিন্দ মেনন। মেননকে শোভনের বাড়িতে নিয়ে গেছেন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার। তবে বন্ধ ঘরের মিটিংয়ে কী কথা হয়েছে তা নিয়ে মুখ খোলেনি কোনওপক্ষই। এবিষয়ে প্রশ্ন করা হলে শোভন জানান,দলকে সংগঠিত করার বিষয়ে মেননের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। 

গত ১৪ অগাস্ট তাঁর দেখা মিলেছিল দিল্লি বিজেপির সদর দফতরে। রাজতনৈতিক মহলের গুঞ্জন, শোভন-বৈশাখীর সঙ্গে সেদিনই যোগ দেওয়ার কথা ছিল রায়দিঘির বিধায়কের। কিন্তু বাঁধ সাধে শোভন-বৈশাখীর আপত্তি। রাজধানীর রাজনীতিতে কান পাতলে শোনা যায়, দেবশ্রীর বিজেপিতে যোগ নিয়ে বেঁকে বসেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। এমনকী দেবশ্রী বিজেপিতে যোগ দিলে তাঁদের পাওয়া যাবে না বলেও হুঙ্কার দেন শোভন। সেযাত্রায় দলের নির্দেশে রিজার্ভ বেঞ্চে রাখা হয় দেবশ্রীকে। রাজ্য় রাজনীতির হাওয়া মোরগ বলছে, এবার বিজেপিতে যোগদানের পালা দেবশ্রীর। বুধবার রাতে সেকারণেই দিলীপ ঘোষের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন তিনি। তবে দেবশ্রী নিয়ে তিনি যে এখনও নিজের অবস্থানেই অনড় সেকথা ফের বুঝিয় দিলেন শোভন।

আরও পড়ুন :আক্রান্ত দিলীপ ঘোষ, কাউন্সিলরের উপস্থিতিতেই হামলা চালাল ২৫০ তৃণমূল-কর্মী

আরও পড়ুন : ছাদহীন মাথায় ট্রেনেই পড়াশোনা, প্রেরণার আরও এক নাম বালক অর্জুন

সূত্রের খবর, রাত সাড়ে দশটা নাগাদ বিজেপির রাজ্য় সভাপতির সল্টলেকের সিএল ব্লকের সামনে একটি গাড়ি এসে দাঁড়ায়। গাড়িতে বসেছিলেন দেবশ্রী রায়। নিজে না নেমে কাউকে দিলীপ ঘোষের সঙ্গে দেখা করতে পাঠান তৃণমূলের বিধায়ক। ঘটনাক্রমে সেই সময় বাড়ি ছিলেন না দিলীপ ঘোষ। সহায়কের মাধ্য়মে সেই খবর পেয়েই গাড়ি নিয়ে রওনা দেন তিনি। পরে রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ বাড়িতে আসেন দিলীপবাবু। দেবশ্রীর আগমনের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে দিলীপ ঘোষ বলেন, দেবশ্রীর আসার বিষয়ে আগাম খবর ছিল না আমার কাছে। 'আমি তো আপনাদের সঙ্গেই ছিলাম।' যদিও তৃণমূলের রায়দিঘির বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন কিনা তা নিয়ে খোলসা করেননি তিনি। এবিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে 'আমি জানি না' বলে বাড়ি ঢোকেন দিলীপ ঘোষ।