করোনা আক্রান্ত হলেন কলকাতা পুলিশের আরও এক থানার ওসি। তিনি এই মুহূর্তে ভর্তি রয়েছেন বাইপাসের কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে। কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তাঁর স্ত্রীও। ইতিমধ্য়েই  কোয়রান্টিনে পাঠানো হয়েছে ওই পুলিশ আধিকারিকের গাড়ির চালক সহ দেহরক্ষীকে।

 আরও পড়ুন, এনআরএসে করোনা আক্রান্ত আরও ১৩, একজনের রিপোর্ট আসার আগেই মৃত্যু

 পুলিশ সূত্রে খবর, গত মঙ্গলবার থেকেই করোনা উপসর্গ দেখা যায় ওই পুলিশ আধিকারিকের শরীরে। তিনি কলকাতা দক্ষিণ-পূর্ব বিভাগের বাইপাস লাগোয়া থানার দায়িত্বে রয়েছেন। লালবাজার সূত্রে দাবি, বুধবার পর্যন্ত তিনি থানায় গিয়েছিলেন। তাঁর থানা এলাকার মধ্যেই কোভিডে মৃতদের সৎকার করার জায়গা।  এরপর জ্বর এবং সর্দি উপসর্গ আসায় বৃহস্পতিবারই তাঁর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় তাঁর স্ত্রীর নমুনাও। শনিবার রাতে তাঁর এবং তাঁর স্ত্রী দুজনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এই মুহূর্তে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন বাইপাসের কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সংস্পর্শে আসার জন্য়, ওই পুলিশ আধিকারিকের গাড়ির চালক এবং দেহরক্ষীকেও  কোয়রান্টিনে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন, আকাশ ঝেঁপে পুষ্প বৃষ্টি শহরের কোভিড হাসপাতালে, পাপড়ি ছড়িয়ে চিকিৎসকদের সম্মান জানাল বায়ু সেনা

উল্লেখ্য়, এর আগে বন্দর এলাকার একটি থানার ওসি আক্রান্ত হয়েছিলেন কোভিডে। তিনি এখন সুস্থ হয়ে বাড়িতে আছেন। জোড়াবাগান থানার এক সাব ইনস্পেক্টরও কোভিডে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন। এর আগে কলকাতা উত্তর ডিভিশনের এক পুলিশ কর্মীও আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনিও রোগমুক্ত। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, ওই আধিকারিকের ফ্ল্যাট এবং তার আশপাশ জীবাণুমুক্ত করবে পুরসভার স্বাস্থ্য দফতর। সেই সঙ্গে জীবাণুমুক্ত করা হবে থানা ভবন এবং চত্বরও। 

 

টানা ২ সপ্তাহ পর খুলল হাওড়া হাসপাতাল, করোনাকে হারিয়ে কাজে যোগ দিলেন সুপার

 করোনা আক্রান্ত এবার জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের এক পুলিশকর্মী, বাঙ্গুর হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন

টিকিয়াপাড়া কাণ্ডে কড়া পদক্ষেপ নিল পুলিশ, গ্রেফতার প্রধান অভিযুক্ত শাকিব সহ আরও ১৩

রোগী ফেলে পালাতে পারল না অ্যাম্বুল্যান্স, পিপিই পরা স্বাস্থ্য়কর্মীদেরকে তীব্র প্রতিবাদ নাকতলাবাসীর