একদিকে যেমন কলকাতা ও রাজ্য় পুলিশে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া বেড়ে চলেছে তেমনই সুস্থ হওয়ার সংখ্য়াও বাড়ছে। বুধবার ফের আট জনের শরীরে করোনাভাইরাস মিলেছে। সূত্রের খবর, এঁরা প্রত্যেকেই পিটিএস অর্থাৎ কলকাতা পুলিশ ট্রেনিং স্কুলের কর্মী। আবার অন্য়দিকে কলকাতা ও রাজ্য পুলিশের মোট ১০০ জন কর্মী করোনা যুদ্ধে জয়ী হয়ে ফিরে এসেছেন।

আরও পড়ুন, করোনার সংক্রমণ এবার নবান্নে, আক্রান্ত ২ গাড়ি চালক

লালবাজার সূত্রের খবর, কলকাতা পুলিশের সব ইউনিট মিলিয়ে বুধবার রাত পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১৬০ জন। মঙ্গলবারও পিটিএসের ১৪ জনের রিপোর্ট পজ়িটিভ এসেছিল। মোট আক্রান্ত পুলিশকর্মীদের অনেকেই সুস্থ হয়ে কোয়রান্টিনে। পাশাপাশি, মঙ্গলবার গরফা থানার এক সাব‌-ইনস্পেক্টরের লালারস পরীক্ষার রিপোর্টও পজ়িটিভ এসেছে। এই নিয়ে গরফা থানায় মোট ১৬ জন কর্মীর শরীরে মিলল করোনার জীবাণু। তাঁদের মধ্যে ৪ জন সাব-ইনস্পেক্টর, ১১ জন কনস্টেবল এবং ১ জন অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব-ইনস্পেক্টর। তবে গরফা, জোড়াসাঁকো, জোড়াবাগান, বউবাজার, প্রগতি ময়দান, আনন্দপুর থানা এলাকা, দক্ষিণ ও জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ড এলাকাগুলিতে একাধিক কনটেনমেন্ট জোন রয়েছে। সেটাও  একটা আশঙ্কার কারণ।

আরও পড়ুন, করোনার সংক্রমণ এবার নবান্নে, আক্রান্ত ২ গাড়ি চালক


অপরদিকে, কলকাতা ও রাজ্য পুলিশের মোট ১০০ জন কর্মী করোনা যুদ্ধে জয়ী হয়ে ফিরে এসেছেন। সুস্থ শরীরে তাঁরা ফের কাজেও যোগ দিয়েছেন। কলকাতা ও রাজ্য পুলিশের মোট ১৭৪ জন কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। এর মধ্যে ১০৬ জন কলকাতা পুলিশ কর্মী। এই ১০৬ জনের মধ্যে ৩৫জন ইতিমধ্যেই কাজে যোগ দিয়েছেন। ৫৬ জন হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে ছাড়াও পেয়েছেন। গত দুদিনে ছাড়া পেয়েছেন ১৬ জন।
 

 

বাংলাদেশ ফেরৎ ২ যাত্রী করোনা পজিটিভ, কোয়ারান্টিনের পর আক্রান্ত হওয়ায় চিন্তায় স্বাস্থ্য দফতর

 কলকাতা মেডিক্যালের ছাদের কার্নিশে বসে করোনা রোগী, সামলাতে গিয়ে নাজেহাল কর্তৃপক্ষ

করোনা মোকাবিলায় বড়সড় উদ্য়োগ, পরিষেবা বাড়াতে ৫০০ ডাক্তার-নার্স নিচ্ছে রাজ্য

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসিস্ট্যান্ট

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের