আবার শিরোনামে কলকাতা মেডিক্য়াল। তবে এবার কোনও করোনা কাণ্ডে নয়। লাগাতার ধর্ষণের অভিযোগ উঠল মেডিক্য়ালের এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ডাক্তারি ছাত্রীকে ভয় দেখিয়ে দিনের পর দিন ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন, স্বাধীনতা দিবসে কোভিড যোদ্ধাদের সংবর্ধনা, মুখ্যমন্ত্রীর লেখা গান গাইবেন বাংলার শিল্পীরা


কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের অভিযোগকারিণী ওই ছাত্রীর দাবি, তিনি কয়েক বছর আগে মেডিক্য়াল কলেজে ভর্তি হওয়ার পরেই এক চিকিৎসক তাঁকে  নানাভাবে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন। আর সেই অছিলায় তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়ে ওঠেন। এমনকি ছেলেদের হস্টেলের মধ্যে একটি ফ্লোরে ঘর ঠিক করে ওই ছাত্রীর ঘরের ব্যবস্থাও করে দেন। আর সেই সুযোগ নিয়েই  মেয়েটির সঙ্গে যৌন সম্পর্ক তৈরি করেন চিকিৎসক। এরপর বাইরের কিছু কথা কানে আসায় সেই চিকিৎসকের সম্পর্কে মেয়েটির ধারণা বদলায়।  তিনি সম্পর্ক থেকে বেরোনোর চেষ্টা করতে শুরু করেন। অভিযোগ, তখন থেকেই অভিযুক্ত চিকিৎসক নানাভাবে হুমকি দিতে থাকেন। ছাত্রীর ডাক্তারি কেরিয়ার শেষ করে দেওয়া হবে এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি ফাঁস করার হুমকিও দেওয়া হয় বলে দাবি তরুণীর।

আরও পড়ুন, দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি মাস্কে উৎসাহ দেখাল না বণিকমহল, যাদবপুরের পেটেন্ট নিল আমেরিকা


চিকিৎসকের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পরেই লিখিত বিবৃতি দিয়েছে মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থীদের সংগঠন। তাঁদের দাবি, এই ঘটনায় যে শুধু মেডিক্যাল কলেজের এতদিনের ঐতিহ্য, সুনাম নষ্ট হয়েছে তাই নয়, কলেজ চত্বরে ছাত্রছাত্রীদের নিরাপত্তার দুর্বলতা প্রকট হয়ে উঠেছে। ফলে অভ্যন্তরীণ তদন্ত কমিটি গঠন করে দ্রুত গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখার দাবি করেছেন তাঁরা।

 

      

 

কোভিড রোগী ভর্তিতে ৫০ হাজার টাকার বেশি নেওয়া যাবে না, নয়া নির্দেশিকা জারি রাজ্যের

ভয় নেই করোনায়, মেডিক্য়ালের ৪ তলার কার্নিশে পা দোলাচ্ছে রোগী

ভুয়ো টেস্টের ফাঁদে পড়ে করোনায় মৃত্যু এক ব্য়াক্তির, গ্রেফতার প্রতারণা চক্রের ৩ জন

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

   পূর্ব ভারতের প্রথম সরকারি প্লাজমা ব্যাঙ্ক-কলকাতা মেডিকেল, করোনা রুখতে প্রস্তুতি তুঙ্গে