Asianet News BanglaAsianet News Bangla

অপেক্ষা শেষ, আইনজীবী রজত দে হত্যা মামলায় স্ত্রী অনিন্দিতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

  •  আইনজীবী রজত দে হত্যা মামলায় অভিযুক্ত স্ত্রীর শাস্তি ঘোষণা
  • যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের শাস্তি ঘোষণা করলো বারাসাত আদালত 
  •  ২০১৮ তে নিউটাউনে  রজত দে-কে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়  
  •  প্রায় ২ বছর পর ন্যায় বিচার পেল রজত দের পরিবার ও  বন্ধুরা 
Calcutta High Court lawyer Rajat Dey murderer Anindita sentenced to life in prison RTB
Author
Kolkata, First Published Sep 16, 2020, 6:22 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

শুভজিৎ পুততুন্ডঃ- কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবি রজত দে মৃত্যুর প্রায় ২ বছর পর মিলল বিচার। আইনজীবী রজত দে হত্যা মামলায় অভিযুক্ত স্ত্রী অনিন্দিতা পাল দে-কে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ও ২০১ ধারা অনুযায়ী যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের শাস্তি ঘোষণা করল বারাসাত আদালত।

 

Calcutta High Court lawyer Rajat Dey murderer Anindita sentenced to life in prison RTB

 

আরও পড়ুন, ৮ বছর পর পদ্মাপারের ইলিশ শহরে ঢুকতেই ফুরুৎ, সন্ধের বাজারের অপেক্ষায় কলকাতাবাসী

প্রসঙ্গত আইনজীবী রজত দে হত্যায় গত সোমবার তার আইনজীবী স্ত্রী অনিন্দিতা পাল দে-কে দোষী সাব্যস্ত করে বারাসাত আদালত।  সকলেই তাকিয়ে ছিল বহু চর্চিত এই রায়ের দিকে। আদালতে সকালেই চলে আসেন মৃত রজতের বাবা সমীর দে ও তার আইনজীবী বন্ধুরা। আগে থেকেই তারা অনিন্দিতার ফাঁসির দাবিতে সরব হয়েছিলেন।  আজ বুধবার বারাসত আদালতে ফাস্ট ট্র্যাক থার্ড কোর্টের বিচারক সুজিত কুমার ঝা এই খুনের মামলায় অভিযুক্ত স্ত্রী অনিন্দিতা কে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ও ২০১ ধারায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের শাস্তি ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন, মহালয়ায় বিজেপি-র 'শহিদ-তর্পণ'-এ 'বাধা' তৃণমূলের, বাগবাজারে প্যান্ডেল খুলল পুলিশ

২০১৮ সালের ২৫ নভেম্বর নিউটাউনের ডিবি ব্লকের ফ্লাট থেকে নিথর দেহ উদ্ধার হয় কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী রজত দে-র।প্রথম থেকেই এই মৃত্যু নিয়ে রহস্য দানা বাঁধে মৃতের পরিবার ও আইনজীবী বন্ধুদের মধ্যে।তাঁরা খুনের অভিযোগে সরব হন। যদিও দেহ উদ্ধারের পর রজতের আইনজীবী স্ত্রী দাবি করেন এটি আত্মহত্যার ঘটনা।এরপর,মৃতের বাবা সমীর দে-র অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অনিন্দিতাকে গ্রেপ্তার করে।পুলিশি জেরায় শেষ পর্যন্ত খুনের কথা কবুল করে সে। তদন্তে নেমে পুলিশের হাতে উঠে আসে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। 

আরও পড়ুন, আশায় আশায় ২ মাস পার, পুজোর আগে পরিবারকে প্রিয়জনের খোঁজ দিল কলকাতা মেডিক্য়ালের মর্গ


ধৃত অনিন্দিতার হোয়াটসঅ্যাপ,গুগল সার্চ করে বিয়ে নিয়ে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতে আসে পুলিশের।তদন্তকারী অফিসারেরা জানতে পারেন,রজতের সঙ্গে দাম্পত্য কলহ চলছিল অনিন্দিতার।বিয়েতে অখুশি ছিল সে।রজতের কাছ থেকে ডিভোর্স চাইছিল অনিন্দিতা।কিন্তু ছেলের কথা ভেবে তাতে রাজি ছিল না রজত।বিয়ের বিষয়ে নিজের হোয়াটসঅ্যাপে বেশ কিছু বিদ্বেষমূলক মন্তব্যও করেছিল অনিন্দিতা। সেসব তথ্য এই খুনের মামলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বলে আদালত সূত্রে  জানা গিয়েছে ।

 

Calcutta High Court lawyer Rajat Dey murderer Anindita sentenced to life in prison RTB

 

আরও পড়ুন, সল্টলেকের আকাশে উড়ল একুশের ঘুড়ি, পুজোর আগেই প্রচারে তৃণমূল


অপরদিকে, ইলেকট্রনিক্স এভিডেন্স পারিপার্শ্বিক তথ্য প্রমানও গুরুত্বপূর্ণ দিক এই মামলার ক্ষেত্রে।এসব গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের উপর ভিত্তি করেই স্বামী খুনে দোষী অনিন্দিতার শাস্তি ঘোষণা করল বারাসত আদালত। গ্রেপ্তার হওয়ার একবছর নয় মাস ষোলো দিনের মাথায় খুনের মামলায় সাজা ঘোষণা করল ফাস্ট ট্রাক থার্ড কোর্টের বিচারক। ফাঁসির শাস্তি না হলেও রজতের খুনের মামলায় অভিযুক্ত স্ত্রীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হওয়ায়, প্রায় দু বছরের মাথায় ন্যায় বিচার পেল রজত দের পরিবার ও আইনজীবী বন্ধুরা।

 

         Calcutta High Court lawyer Rajat Dey murderer Anindita sentenced to life in prison RTB

 

চিকিৎসা সংক্রান্ত খরচ গোপন, কলকাতার ৬ হাসপাতালের বিরুদ্ধে মামলা স্বাস্থ্য কমিশনের

কোভিড আক্রান্তের ফ্ল্য়াটে ঝুলল তালা, বিপাকে পরিবার, রইল করোনা ক্রাইমের সাতকাহন

কোভিড রোগী ভর্তিতে ৫০ হাজার টাকার বেশি নেওয়া যাবে না, নয়া নির্দেশিকা জারি রাজ্যের

ভয় নেই করোনায়, মেডিক্য়ালের ৪ তলার কার্নিশে পা দোলাচ্ছে রোগী

ভুয়ো টেস্টের ফাঁদে পড়ে করোনায় মৃত্যু এক ব্য়াক্তির, গ্রেফতার প্রতারণা চক্রের ৩ জন

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios