রাজ্য় জুড়ে আমফানের জেরে এক টানা ভুগতে হয়েছে বিদ্য়ুৎ বিভ্রাটে। বহু চেষ্টায়  অবশেষে বাংলায় এখন বিদ্য়ুৎ ফিরে এসেছে। এক দিকে করোনা আবহ। আর এক দিকে সেই আমফানের রেশ কাটতে না কাটতেই আচমকা বিদ্য়ুৎ বিভ্রাট কলকাতা মেডিক্য়ালে। 

আরও পড়ুন, পুরোনো ছন্দে ফিরছে শহর, জানুন সোমবার থেকে চালু কী কী পরিষেবা


  মেডিকেল কলেজ সূত্রের খবর, সোমবার  দুপুর ৩ টে ৩৫ নাগাদ আচমকাই বিদ্যুৎবিহীন হয়ে পড়ে একাধিক বিল্ডিং।  হঠাৎই গ্রীন বিল্ডিং অন্ধকার হয়ে যায়। আর এখানেই একশোরও উপরে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে রোগী ভর্তি রয়েছেন। এই বিল্ডিং এর মধ্য়েই রয়েছে আইসিইউ। তবে প্রায় দেড়ঘণ্টা সবই বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় থাকে। ইডেন বিল্ডিং, গ্রীন বিল্ডিং-সহ বেশ কয়েকটি বিল্ডিং সম্পূর্ণ অন্ধকারে ছিল দীর্ঘ সময় ধরে। এরপর  জন্য ইডেন বিল্ডিং-এর পিছনে রাখা সবচেয়ে বড় জেনারেটর  চালু করার চেষ্টা করা হয়। এদিকে চালু করা যায়নি ওই জেনারেটরও। সবমিলিয়ে সমস্যায় পড়তে হয় কর্তৃপক্ষকে। তবে ঠিক কী কারণে এই বিদ্যুৎ বিপর্যয়, তা এখনও জানা যায়নি। 

আরও পড়ুন, সোমবার থেকেই কলকাতা বিমানবন্দরে বাড়ছে উড়ানের সংখ্য়া, যাত্রী সুরক্ষায় আরও কড়াকড়ি


এ বিষয়ে এক আধিকারিকের বক্তব্য, 'যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে কাজ চলছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে শীঘ্রই।' বিকেল ৫টা পর্যন্তও বিদ্যুৎ আসেনি। যদিও তারপর ফের বিদ্যুৎ সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব হয়েছে। ধীরে ধীরে স্বস্তি ফিরেছে কলকাতা মেডিক্য়ালে। 
 

 

 কলকাতা মেডিক্যালের ছাদের কার্নিশে বসে করোনা রোগী, সামলাতে গিয়ে নাজেহাল কর্তৃপক্ষ

রাজ্য়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া ছাড়াল ৫০০০, একদিনে আক্রান্ত ৩১৭ 

 করোনা মোকাবিলায় বড়সড় উদ্য়োগ, পরিষেবা বাড়াতে ৫০০ ডাক্তার-নার্স নিচ্ছে রাজ্য

করোনা আক্রান্ত বেলেঘাটা থানার আধিকারিক সহ পরিবারের ৬ সদস্য, আইডিতে এখন চিকিৎসধীন

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসিস্ট্যান্ট

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের