লাদাখে গালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনা ও ভারতীয় সেনারা সংঘর্ষে একসঙ্গে ২০ জন ভারতীয় সেনার মৃত্যুর খবরে গোটা দেশই শোকাহত। উল্লেখ্য়, এরই মাঝে শহীদ ভারতীয় সেনার মাঝে রয়েছেন দুই জন পশ্চিমবঙ্গেরও বাসিন্দা। এই ঘটনায় টুইট করে শোকপ্রকাশ করেছেন রাজ্য়ের মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে শহীদ ওই দুই সেনার পরিবারকে পাঁচ লক্ষ টাকা এবং সরকারি চাকরির ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন।

 

 

আরও পড়ুন, বড়বাজার শিশু খুনে অভিযুক্তের ফাঁসির দাবিতে পরিবার, তদন্তে ৬তলা থেকে পুতুল ফেলল বিশেষজ্ঞরা


রাজ্য়ের মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইটে জানিয়েছেন, ' গালওয়ান উপত্যকায় শহিদ বীর পুরুষদের পরিবারের প্রতি আমার আন্তরিক সমবেদনা। রাজেশ ওরাং এবং বিপুল রায়, দু'জনেই পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা বলে আমি খুবই ব্য়াথিত।' রাজেশ ওরাং হলেন পশ্চিমবঙ্গের বীরভূমের বাসিন্দা। পাশাপাশি বিপুল রায় আলিপুরদুয়ারের বাসিন্দা।সেনাবাহিনীর ১৬ নম্বর বিহার রেজিমেন্টে কনস্টেবল পদে কর্মরত ছিলেন বিপুল রায়। সেনাবাহিনীর ১৬ নম্বর বিহার রেজিমেন্টে কনস্টেবল পদে কর্মরত ছিলেন বিপুল রায়। জানা গিয়েছে, গত বছরের ডিসেম্বরে শেষবার বাড়িতে এসেছিলেন শহিদ জওয়ান। তাঁদের মৃত্যুর খবরে শোক নেমেছে। কান্না ভেঙে পড়েন সবাই।

 

 

আরও পড়ুন, বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরীর সম্ভাবনা, আগামী ৫ দিন প্রবল বৃষ্টি রাজ্যজুড়ে


প্রসঙ্গত, ১৪জুন রবিবার রাতের দিকেও চিনা সেনারা ভারতীয় সেনাদের লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়ে। বাধা দেয় পেট্রোলিং-এ। পরের দিন অর্থাৎ ১৫ জুন সোমবার সকাল থেকেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সীমান্ত পরিস্থিতি। গ্যালওয়ান নদীর একটি উঁচু অংশে দুই দেশের সেনারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে বলে অভিযোগ। পরিস্থিতি ক্রমশই জটিল আকার নেয়। সেই সময় ভারতীয় সেনাদের গ্যালওয়ান নদীতে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। চিনা সেনাদের ভারতীয় ভূখণ্ড খালি করতে বলা হয়। কিন্তু চিনা সেনারা রাজি না হওয়ায় বিহার রেজিমেন্টের কর্নেল সন্তোষ বাবুর নেতৃত্বে ভারতীয় সেনাবাহিনীর নিরস্ত্র একটি দল টহল দেওয়ার পাশাপাশি চিনা সেনাদের সঙ্গে আলোচনার জন্য যাত্রা শুরু করে। কিন্তু আলোচনায় কোনও লাভ হয়নি। চিনা সেনারা ফিরে যেতে অস্বীকার করে। পাশাপাশি সীমান্তে অস্বস্তি আরও বাড়িয়ে তোলে। সোমবার রাতে গালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনা ও ভারতীয় সেনারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলেই এক কর্নেল-সহ আরও দুই ভারতীয় জওয়ানের মৃত্যু হয়েছিল। তারপর মঙ্গলবার গুরুতর আহত আরও ১৭ জন সৈনিক মারা যান। একসঙ্গে ২০ জন ভারতীয় সেনার মৃত্যুর খবরে গোটা দেশই শোকাহত।


 

 

আরও পড়ুন, করোনা আক্রান্ত বেলুড়ের এক মহারাজ, মঠ খোলার দিন আপাতত অনিশ্চিত

করোনা আক্রান্ত হয়ে ফের মৃত্যু এক কলকাতা পুলিশকর্মীর, উদ্বিগ্ন লালবাজার

করোনায় সুরক্ষাবিধি নিয়ে বিক্ষোভের জের, বদলি ১৩ পুলিশকর্মীর

করোনা আক্রান্ত নিজাম প্যালেসের এক সিবিআই আধিকারিক, স্যানিটাইজ করা হল পুরো অফিস

করোনা আবহে সুরজিৎ কর পুরকায়স্থের প্রাক্তন স্ত্রী-শাশুড়ির দেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ

 পিটিএসে নতুন করে আক্রান্ত আরও ৮, করোনা মুক্ত হয়ে কাজে ফিরলেন ১০০ পুলিশ কর্মী

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসি