লকডাউনের জেরে গত সপ্তাহেই বৃহত্তর কলকাতা জুড়ে কমেছিল বেসরকারি বাস। তার সঙ্গে ছিল অন্যান্য জটিলতাও। তবে এবার পশ্চিমবঙ্গ পরিবহণ নিগমের একাধিক চালক ও কন্ডাক্টর করোনা আক্রান্ত হওয়ায় সোমবার থেকে সরকারি বাসও কমে যাওয়ারও আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

আরও পড়ুন, 'কলকাতার জয়', চাপের মুখে পড়ে বিদ্যুতের বিল নিয়ে সিদ্ধান্ত বদল সিইএসসি-র


পশ্চিমবঙ্গ পরিবহণ নিগমের ১৬ জন চালক ও কন্ডাক্টর-সহ ২৫ জন কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ইতিমধ্যেই  মারা গিয়েছেন এক জন। এছাড়া, এসবিএসটিসি ও এনবিএসটিসির কলকাতা ডিপোয় কর্মরত দুই কর্মীরও করোনায় মৃত্যু হয়েছে । ওই দুই সংস্থার আরও অন্তত ১৩ জন কর্মী করোনায় সংক্রামিত হয়েছেন। তিনটি নিগমের চালক ও কন্ডাক্টরদের মধ্যে করোনা নিয়ে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে প্রতিদিনই। সোমবার সপ্তাহের প্রথম কাজের দিনে পথে সরকারি বাস কী সংখ্যায় থাকবে, তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। বেসরকারি বাস কমার জন্য মালিকরা কোভিড-আতঙ্ককেই দায়ী করছেন। চালক ও কনডাক্টরদের অনেকেই গাড়ি ছেড়ে বাড়ি পালাচ্ছেন। এ বার দেখা যাচ্ছে, সরকারি বাস পরিষেবাও এই আতঙ্ক থেকে মুক্ত নয়।

আরও পড়ুন, কলকাতায় দু-এক পশলা বৃষ্টির পূর্বাভাস, উত্তরবঙ্গে প্রবল বর্ষণ-ধ্বস ও প্লাবনের আশঙ্কা


পশ্চিমবঙ্গ পরিবহণ নিগম, এসবিএসটিসি ও এনবিএসটিসি সকালের শিফ্‌টে ৯৮২টি বাস পথে নামালেও বিকেলের শিফ্‌টে তা কমিয়ে ৬৪০ করা হয়। পরিবহণ দপ্তর সূত্রের খবর, কোনও কর্মী, চালক বা কনডাক্টরের শরীরে কোভিডের উপসর্গ নজরে আসা মাত্রই তাঁকে রাজারহাটের পরীক্ষাকেন্দ্রে পাঠানো় হচ্ছে।

 

 

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

  করোনা আক্রান্ত আরও ১৯ ব্য়াঙ্ক কর্মী, ট্রেনিং সেন্টারকে কোয়ারেন্টিন কেন্দ্র করার প্রস্তাব

   পূর্ব ভারতের প্রথম সরকারি প্লাজমা ব্যাঙ্ক-কলকাতা মেডিকেল, করোনা রুখতে প্রস্তুতি তুঙ্গে

  মৃত্যুর পর ২ দিন বাড়ির ফ্রিজে করোনা দেহ, অভিযোগ 'সাহায্য মেলেনি স্বাস্থ্য দফতর-পুরসভার'

 করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু এক সেনা কর্তার, ফোর্ট উইলিয়ামের শোকের ছায়া

  অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকলের পরও কোভিড জয়ী ৫৪-র দুধ ব্যবসায়ী, শহরকে দিলেন এক সমুদ্র আত্মবিশ্বাস

কোভিড রোগী ফেরালেই লাইসেন্স বাতিল, হাসপাতালগুলিকে হুঁশিয়ারি রাজ্য়ের