ফুলবাগান হত্যাকাণ্ডের তদন্তে খুলল বড়সড় জট। কলকাতা বিমানবন্দর থেকে সোজা শ্বশুরবাড়িতে এসেছিল অমিত আগরওয়াল।  প্রাথমিক তদন্তে এমনটাই অনুমান করেছিল পুলিশ। তবুও রিভলবার পাওয়ার জটটা কাঁটা ফোটাচ্ছিল। অবশেষে খুলে গেল সেই জটও। রহস্যের সমাধান করে ফেলল পুলিশ।

আরও পড়ুন, মনের ঝড় নিয়ে গেল চিরঘুমের দেশে, শহরে ফের আত্মঘাতি ৪


পুলিস সূত্রে খবর, ৭ বছর আগে নয়াবাদে একটি ফ্ল্যাট কিনেছিলেন অমিতের আগরওয়ালের শ্বশুর। সেই ফ্ল্যাটের চাবি অমিতের কাছেই থাকতো। মাঝেমধ্যেই ওই ফ্ল্যাটে আসতো অমিত। সেখানেই রিভলবার ছিল অনুমান পুলিশের।  শ্বশুরবাড়িতে আসার আগে নয়াবাদ থেকে ওই রিভলবারটি সে নিয়ে যায়। তবে এক্ষেত্রে আরও একটি বিষয় হওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানাল পুলিশ। সেটি হল, আগেই হয়তো কলকাতায় এসে ওই ফ্ল্য়াটে রিভলবার রেখে গিয়েছিল অমিত। অথবা কেউ এসে ওইদিন ফ্ল্যাটের বাইরে রিভলবার রেখে গিয়েছিল। এদিকে অমিতের হিট লিস্টে ছিল শ্বশুরবাড়ির গোটা পরিবার। সোমবার হত্যালীলা চালানোর আসে সে স্ত্রী শিল্পীর ভাই বিনীত ঢনঢনিয়াকে কলকাতায় আসার জন্য বহুবার ফোন করে। বিনীত কর্মসূত্রে থাকেন গুরুগ্রামে। পুলিশি সূত্রে খবর, খুনের আগে রিভলবার নিয়ে রীতিমতো পড়াশোনা করেন অমিত আগরওয়াল।  লোডেড রিভলবার ব্যবহারের তথ্যও মিলেছে অমিতের ল্যাপটপে। 

আরও পড়ুন, 'নেশাগ্রস্ত' অবস্থায় রেড রোডে ঘুরছেন অর্ধনগ্ন তরুণী, চরম অস্বস্তির মুখে কলকাতা পুলিশ

প্রসঙ্গত, সোমবার সন্ধ্যায় ফুলবাগানের রামকৃষ্ণ সমাধি রোডে যান অমিত আগরওয়াল। বছর বিয়াল্লিশের অমিত পেশায় চাটার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট। রামকৃষ্ণ সমাধি রোডে রামেশ্বরম অ্যাপার্টমেন্টের বি-টাওয়ারের তেতলায় অমিতের শ্বশুর সুভাষ ধান্দানিয়ার অ্যাপার্টমেন্ট। ওই টাওয়ারের বাকি বাসিন্দাদের দাবি, অমিত ভিতরে যাওয়ার পর থেকেই প্রবল চিৎকার ভেসে আসছিল। অমিত রীতিমতো চিৎকার করে শ্বশুর সুভাষ ও শাশুড়ি ললিতার সঙ্গে ঝগড়া করছিলেন। আচমকাই  এরপর সুভাষ ধান্দানিয়ার ফ্ল্যাটে গুলির আওয়াজ পাওয়া যায়। রাত ৮ নাগাদ পুলিশ রামেশ্বরম অ্যাপার্টমেন্টে পৌঁছয়।  দেখা যায় মেঝেতে পড়ে রয়েছে বছর বাষট্টির ললিতা ধান্দানিয়ার নিথর দেহ।  বিছানার উপরে মেলে বছর বিয়াল্লিশের অমিতের নিথর শরীর।  পুলিশি তদন্তে উঠে আসে সোমবার শহরে ফিরেই খুন করে অমিত। বিকেলের দেড় ঘণ্টা অমিতের গতিবিধি ধরা পড়েছে পুলিসের স্ক্যানারে। তবে এই মাঝের ৪ মিনিট এখনও অধরা। আগ্নেয়াস্ত্র সরবরাহকারীর খোঁজ করছে পুলিস। এই ৪ মিনিট ঠিক কী হয়েছিল জানতে গভীরভাবে খতিয়ে দেখছে তদন্তকারীরা।

 

 

কোভিড রোগী ফেরালেই লাইসেন্স বাতিল, হাসপাতালগুলিকে হুঁশিয়ারি রাজ্য়ের

 কলকাতায় একদিনে চিহ্নিত প্রায় ২০০ বাড়ি, কনটেইনমেন্ট জোন বৃদ্ধির কারণ বললেন মুখ্যসচিব

 করোনায় সুরক্ষাবিধি নিয়ে বিক্ষোভের জের, বদলি ১৩ পুলিশকর্মীর

করোনা আক্রান্ত নিজাম প্যালেসের এক সিবিআই আধিকারিক, স্যানিটাইজ করা হল পুরো অফিস

করোনা আবহে সুরজিৎ কর পুরকায়স্থের প্রাক্তন স্ত্রী-শাশুড়ির দেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসি